শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বিশ্বনাথে জামায়াত-পুলিশ সংঘর্ষ : নিহত ১: আহত ২০ আটক ৪



DIGITAL CAMERAমোহাম্মদ আলী শিপন, বিশ্বনাথ: সিলেটের বিশ্বনাথে বুধবার সকাল সাড়ে ৭টায় উপজেলা সদরের পল্লী বিদুৎ অফিসের সামনে জামায়াত-পুলিশের সংর্ঘষে এক জামায়াতকর্মী নিহত হন। নিহতের নাম গোলাম রব্বানী (২৯)।` তিনি উপজেলার খাজাঞ্চি ইউনিয়নের পাকিচিরি গ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে এবং উপজেলা জামায়াতের সহকারি সেক্রেটারী মতিউর রহমানের ভাতিজা। তাকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান বলে পুলিশ জানায়। সংর্ঘষে পুলিশ ৩ রাউন্ড চায়না গুলি, ৬৪ রাউন্ড রাবার বুলেট, ১২ রাউন্ড টিয়ারসেল নিপে করে। সংর্ঘষের ঘটনায় পুলিশসহ ২০জন আহত হয়েছেন। এরই মধ্যে গুলিবৃদ্ধি জামায়াত কর্মী আবুল কালাম (২৫) ও মঈনউদ্দিন (৩০) কে আশংকাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানাগেছে। আহতরা হলেন পুলিশের কনষ্টেবল আব্দুলাহ আল মামুন, শরীফ আহমদ, মোস্তফা, উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারী এইচ.এম. আক্তার ফারুক। অন্যান্য আহতদের নাম জানাযায়নি। এসময় পুলিশ ব্যবসায়ীসহ ৪ জামায়াত-শিবির কর্মীকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- জামায়াত কর্মী রেদুয়ান (২০), বাছিত (২২), কাছা মিয়া (২৫) ও ব্যবসায়ী রুমেল আহমদ (২৫)।` এঘটনায় উপজেলা সদরের বিজিবি ও র‌্যাবের টহল জোরধার করা হয়। নিহতের লাশ সিলেট ওসমানী হাসপাতালের মর্গে রয়েছে বলে পুলিশ জানায়।
জানাগেছে, সিলেটে জামায়াতের ডাকা সকাল-সন্ধা হরতাল চলাকালে সকাল সাড়ে ৭টায় উপজেলা জামায়াত-শিবির লাটি সোটা নিয়ে স্থানীয় পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সামন থেকে মিছিল বের করে। মিছিলটি বাজারের দিকে আসতে চাইলে পুলিশ বাঁধা দেয়। এসময় জামায়াত-শিবির কর্মীরা পুলিশ ল করে ইট পাটকেল নিপে করলে পুলিশ চায়না গুলি, রাবার বুলেট ও টিয়ারসেলট নিপে করতে থাকে। এসময় গুলিবৃদ্ধি জামায়াতকর্মী গোলাম রব্বানী মাটিতে লুটে পড়েন। পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করে। হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এতে পুলিশ-জামায়াত শিবিরের ২০ নেতাকর্মী আহত হন।
উল্লেখ্য, সিলেট মহানগর জামায়াতের আমীর অ্যাডভোকেট এহসানুল মাহবুর জুবায়েরকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে সিলেটে জামায়াতের গতকাল ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দেয়। বিশ্বনাথে হরতালের সমর্থনে জামায়াত-শিবির মিছিল বের করলে এ ঘটনা ঘটে।
উপজেলা জামায়াতের নায়েবে আমীর নিজাম উদ্দিন বলেন, শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালনকালে পুলিশ আমাদের ওপর গুলি করে। এতে আমাদের কর্মী গোলাম রব্বানী নিহত হয় এবং বেশ কয়েজন আহত হয়েছেন।
বিশ্বনাথ থানার পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ জানান, জামায়াত-শিবির কর্মীরা বিদ্যুৎ অফিসে হামলা চালায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। এসময় জামায়াত-শিবির কর্মীরা পুলিশের ওপর অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। তিনি বলেন, জামায়াতের অস্ত্রের আঘাতে নিহত হয় তাদের এক কর্মী।
পল্লী বিদ্যুৎ বিশ্বনাথ জোনাল অফিসের এজিএম ওমর ফারুক বলেন, অফিসে কোন হামলার ঘটনা ঘটেনি।
.

 

 

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত