রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে এক সপ্তাহেও অপহৃত স্কুলশিক্ষিকা উদ্ধার হয়নি



ophoronমৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে এক সপ্তাহ পার হতে চললেও অপহৃতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা উদ্ধার হয়নি। প্রকাশ্য দিবালোকে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে মোর্শেদা আক্তার (২৪) নামের এক স্কুল শিক্ষিকাকে অপহরণ ঘটনায় ৩ জনের নাম উলেস্নখসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৩ জনকে আসামী করে কমলগঞ্জ থানায় মামলা হয়েছে। তবে ঘটনার এক সপ্তাহেও স্কুলশিক্ষিকাকে উদ্ধার কিংবা কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।কমলগঞ্জ থানায় মামলা সূত্র জানায়, কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের বনগাঁও গ্রামের ইসরাইল মিয়ার মেয়ে সরইবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা মোর্শেদা আক্তার (২৪) গত ১৪ মার্চ বিকেল পৌনে ৩টায় স্কুল থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে বনগাঁও গ্রামের দুরম্নদ বখতের ছেলে সালমান বখত (মামুন) এর নেতৃত্বে ৪/৫ যুবক শিক্ষিকা মোর্শেদাকে জোরপূর্বক অপহরণ করে একটি প্রাইভেট কারে তুলে নিয়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও শিক্ষিকা মেয়ের কোন খোঁজ না পেয়ে পরদিন বিকেলে ইসরাইল মিয়া বাদী হয়ে সালমান বখতকে প্রধান আসামী করে থানায় মামলা করেন (নং-০৬)। স্কুল শিক্ষিকার পিতাইসরাইল মিয়া জানান, বিভিন্ন জায়গা থেকে তার বিয়ের জন্য প্রসত্মাব আসছিল। বিয়ের বিষয়ে তাদের পরিবারে আলাপ আলোচনা চলছিল। এরই মধ্যে এই ঘটনা ঘটলো। এখনও স্কুলশিক্ষিকাকে উদ্ধার কিংবা কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।
কমলগঞ্জ উপজেলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অসমঞ্জু প্রসাদ রায় চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক ফয়সল আল-কয়েছ চৌধুরী এ ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে স্কুল শিক্ষিকাকে দ্রম্নত উদ্ধার ও আসামীদের গ্রেফতারের দাবি জানান।
মামলার তদনত্মকারী কর্মকর্তা কমলগঞ্জ থানার এসআই উত্তম কুমার দাশ জানান, ঘটনার তদনত্ম চলছে। ভিকটিম উদ্ধার ও আসামীকে গ্রেফতারে জোর চেষ্টা চলছে। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কমলগঞ্জ থানার ওসি নীহার রঞ্জন নাথ জানান, স্কুল শিক্ষিকাকে উদ্ধারের জন্য ব্যাপক পুলিশি তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত