বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

৭ বছর পর নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের কাউন্সিল অনুষ্টিত হতে যাচ্ছে : নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রাণচাঞ্চল্য



nabignj aleageনবীগঞ্জ/হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : প্রায় দীর্ঘ ৭ বছর পর অবশেষে নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের কাউন্সিল অনুষ্টিত হতে যাচ্ছে। এ নিয়ে নেতাকর্মীদের মনে প্রাণচাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবার রাতে উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে মনোনয়ন দাখিলের মধ্যে দিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত হয়া গেছে। বহুল প্রতিক্ষিত এ কাউন্সিল আগামী ২৯ মার্চ অনুষ্টিত হবে বলে দলীয় সূত্রে জানা যায়।২০০৬ সালের ১০মে সর্বশেষ উপজেলা আওয়ামীলীগের কাউন্সিল অনুষ্টিত হয়েছিল। ওই কাউন্সিলে নির্বাচিত সভাপতি অধ্যাপক্ষ মুজিবুর রহমান ও সাধারন সম্পাদক আবু সিদ্দিক আজোবধি দায়িত্ব পালন করে আসছেন। ওই কমিটি মেয়াদ উর্ত্তীন হলেও বিভিন্ন জটিলতার কারনে পরবর্তীতে আর কোন কাউন্সিল অনুষ্টিত হয়নি। র্দীর্ঘ প্রতিক্ষার প্রহর শেষে প্রায় ৭ বছর পর আবারো কাউন্সিল অনুষ্টিত হতে যাচ্ছে। গত শুক্রবার রাতে কাউন্সিল উপলক্ষে গঠিত সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির কাছে দলীয় কার্যালয়ে ৪টি পদে মোট ১৪জন প্রার্থী তাদের মননোয়ন পত্র দাখিল করেছেন। সভাপতি পদে বর্তমান সভাপতি অধ্যাপক্ষ মুজিবুর রহমান ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুর রহমান মুকুল, সাধারণ সম্পাদক পদে বর্তমান সাধারন সম্পাদক মোঃ আবু সিদ্দিক,ও বর্তমান যুগ্ম সাধারন সম্পাদক দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার সংবাদদাতা ও নবীগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারন সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক পদে বর্তমান যুগ্ম সম্পাদক এডঃ মুজিবুর রহমান কাজল, বর্তমান সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী ওবায়দুল কাদের হেলাল,আনসার উদ্দিন, এডঃ গতি গবিন্দ্র দাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে বর্তমান সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার মিয়া ,মোস্তাক আহমদ মিলু, খালেদ আহমদ, রাব্বি আহমদ মাক্কু, আবু ইউসুফ, রবীন্দ্র পাল। ১টি পৌরসভা ও ১৩টি ইউনিয়নে মোট কাউন্সিলর হচ্ছেন ২৯৪জন। মননোয়নপত্র দাখিলের পর শুক্রবার রাত থেকেই ভোটার দের বাড়িবাড়ি যাচ্ছেন প্রার্থীরা। ৪টি পদের মধ্যে যুগ্ম সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে তেমন আলোচনা না হলেও সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক পদ নিয়ে চলছে নানা গুঞ্জন। এ দুই পদে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলে ধারনা করছেন দলীয় নেতাকর্মীরা।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত