সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

নিরপেক্ষ রাষ্ট্রপতি সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রথম ধাপ: মোশাররফ



image_17874_0ডেস্ক রিপোর্ট : নিরপেক্ষ রাষ্ট্রপতিই সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রথম ধাপ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হেসেন। তিনি বলেন, “একজন নিরপেক্ষ রাষ্ট্রপতি প্রয়োজন। কারণ তার অধীনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সংসদে আওয়ামী লীগ সরকারের দুই-তৃতীয়াংশেরও বেশি আসন রয়েছে। সুতরাং তারা যাকে মনোনয়ন দেবেন তিনিই হবেন পরবর্তী রাষ্ট্রপতি।”রোববার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে অল কমিউনিটি ফোরাম আয়োজিত ‘জাতীয় সংকট নিরসনে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রয়োজনীয়তা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধা্ন অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
মোশররফ বলেন, “আওয়ামী লীগ যদি দলীয় স্বার্থ দেখে দলীয় ব্যক্তিকে মনোনয়ন দেয়া হয় তাহলে আগামী নির্বাচন নিয়ে সংকট আরো ঘনিভূত হবে। সেজন্য আজকে প্রয়োজন সবার কাছে আস্থাভাজন, নিরপেক্ষ ও নির্দলীয় রাষ্ট্রপতি।” দেশ ও জনগণের স্বার্থকে সামনে রেখে একজন নিরপেক্ষ রাষ্ট্রপতি নিয়োগ দেয়ারও আহ্বান জানান তিনি। বিএনপির এই নেতা বলেন, “সরকার সংবিধান থেকে তত্ত্বাবধায়ক বাতিল করে জাতীয় সংকটের সৃষ্টি করেছে। বছরের প্রথম দিকে জাতীয় দৈনিকের জরিপে দেশের ৭০ শতাংশ জনগণ নির্দলীয়-নিরপেক্ষ নির্বাচনের পক্ষে রায় দিয়েছেন। কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকার সংবিধানে তত্ত্বাবধায়ক ফিরিয়ে না দিয়ে আগামী নির্বাচনকে অনিশ্চিত করে ফেলেছে।” খন্দকার মোশাররফ বলেন, “দুই দলের আস্থার আভাবের কারণেই তত্ত্বাবধায়ক সরকারব্যবস্থা প্রণয়ন করা হয়েছিল। বর্তমানে সেই অবিশ্বাস আর দূরত্ব আরো বেড়েছে। অতএব তত্ত্বাবধায়ক বাতিলের সিদ্ধান্ত অযৌক্তিক।”
সংগঠনের উপদেষ্টা ইঞ্জিনিয়ার আশরাফ উদ্দীনের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপ-উপাচার্যফ অধ্যাপক ইউসুফ হায়দার, ডা. মারুফ খন্দকার প্রমুখ

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত