রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মিলান দারুল হিকমাহ নূরানী মাদ্রাসায় মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত



IMAG3973ইতালীর মিলানে “মিলান কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের তত্বাবধানে দারুল হিকমাহ নূরানী মাদ্রাসায় স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব ও গণতন্ত্র রক্ষার শপথ নিয়ে যথাযোগ্য মর্যাদা ও শ্রদ্ধায় স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত হয়েছে । ৩১ মার্চ রবিবার সকাল ১১ টায় মাদ্রাসার প্রধান পরিচালক জনাব জুনাইদ সোবহানের সভাপতিত্বে এবং আবু নাসের বাহারের পরিচালনায় “মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা, সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ছাত্র ছাত্রীদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
মাদ্রাসার পরিচালক জনাব জুনাইদ সোবহান তার বক্তব্যে বলেন,ইতালীতে বেড়ে উঠা আমাদের এই নতুন প্রজন্মদেরকে বাংলাদেশের মহান মুক্তি যুদ্ধ,স্বাধীনতা সহ মাতৃভূমির পরিচিতি তুলে ধরার জন্যই আমাদের এই আয়োজন।মাদ্রাসার বিভিন্ন সফলতা ইতিহাস তুলে ধরে বলেন, ইতালীর বহুজাতিক সমাজে জন্মগ্রহণকারী বাংলাদেশী বংশোদ্ভূতদের সহীহ কুরআন শিক্ষা,ইসলামের মৌলিক বিধি বিধান গুলি শিক্ষা প্রধান, বাংলা ভাষা ও বাংলাদেশের সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচিত রাখার প্রত্যয় নিয়ে ২০০৪ সালে এই মাদ্রাসার যাত্রা শুরু হয়। বর্তমানে ১১ জন অভিজ্ঞ শিক্ষক মন্ডলী দ্বারা শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে।মাদাসার এই অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখার জন্য মাদাসার পরিচালক সবার সহযোগিতা কামনা করেন।
বক্তব্য রাখেন সহকারী প্রধান শিক্ষক অধ্যাপক জিয়াউল কারিম, ইসলামিক ফোরাম উত্তর ইতালীর অফিস ও প্রকাশনা সম্পাদক হাফিজুল ইসলাম।
আলোচনার ফাঁকে ফাঁকে “রেনেসা শিল্পি গোষ্ঠি মিলান” এর শিল্পিরা ও মাদ্রাসার ছাত্র ছাত্রীদের অংশ গ্রহনে দেশাত্ববোধক,ইসলামী সংগীত,কৌতুক,নাটিকা পরিবেশন করে অনুষ্ঠানকে প্রাণবন্ত করে তুলেন।এতে অংশ নেন কন্ঠ শিল্পি মাহমুদ,মিজান,ওয়াহিদ,
মোক্তার,জহির,মুনির,বাহার,আনীন, আনন্দ,ফোয়াদ,অনু, নাবিলা,লুবাবা সহ আরও অনেকে।
চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় ২ টি গ্রুপে বিভক্ত করে মোট ৪০ জন শিশু কিশোর অংশ গ্রহণ করে.তাদের মধ্য থেকে ৬ জনকে পুরস্কৃত করা হয়.
মাদ্রাসার ছাত্রী মিশেল মাহবুব ,তাজরিয়ান আবেদিন সঞ্চিতা ,নাফিয়া হায়দার ,ছাত্র হাবিবুর রহমান, শওকত ইসলাম আনীন সাইফুল ইসলাম শাকিল সহ অনেকে কুরআন থেকে দারস,হাদিসে রাসুল এবং ইসলামী সংগীত পেশ করে।
অনুষ্ঠান শেষে মুক্তি যুদ্ধের বীর শহীদদের আত্নার মাগফিরাতও দেশের শান্তি কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করেন অভিভাবক হাফিজুল ইসলাম।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত