সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বড়লেখার পাল্লাথল ও আয়শাবাগ চা বাগানে চরম উত্তেজনা



Barlekha Tea labour Dhormogot 1জালাল আহমদ : বড়লেখার উত্তর শাহবাজপুরে অবস্থিত পাল্লাথল চা বাগানের কয়েকজন শ্রমিককে পার্শ্ববর্তী আয়শাবাগ চা-বাগানের শ্রমিকরা অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার জের ধরে গতকাল বুধবার সকাল থেকে কাজ বন্ধ করে ধর্মঘট করছে শ্রমিকরা। শিশুসহ গত মঙ্গলবার বিকেলে পাল্লাথল চা বাগানে কর্মরত নারী-পুরুষ ও শিশুসহ কয়েকজন শ্রমিককে অপহরণ করা হয়। 
সরেজমিন গতকাল বুধবার দুপুরে পাল্লাথল বাগান এলাকায় গিয়ে জানা গেছে, পাল্লাথল বাগানের ৫ নম্বর সেকশন এলাকায় ৫২ একর জায়গার মালিকানা নিয়ে পাল্লাথল চা বাগানের সাথে পার্শ্ববর্তী আয়শাবাগ বাগানের বিরোধ চলে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। স্থানীয় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে কিছুদিন আগে বিরোধপূর্ণ ভূমিতে জরিপও করা হয়। গত সোমবার রাতে দুর্বৃত্তরা দা ও লাঠিসোটা নিয়ে বিরোধপূর্ণ জায়গায় প্রবেশ করে পাল্লাথলের সাজু, বঙ্কিম, মানিক এবং শুক্রা নামের ৪ শ্রমিকের বসতবাড়ি গুঁড়িয়ে দেয়। মঙ্গলবার সকালে আয়শাবাগ চা-বাগানের শ্রমিকরা বিরোধপূর্ণ জায়গায় তড়িঘড়ি করে খুঁটি ও কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে জায়গাটি দখলে নেওয়ার চেষ্টা চালায়। এ সময় পাল্লাথল চা বাগানের শ্রমিকেরা বাঁধা দিলে দু’পরে মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এসব ঘটনায় মঙ্গলবার বিকেলে পাল্লাথল চা বাগানের সহকারী ব্যবস্থাপক জাকির হোসেন থানায় লিখিত অভিযোগ দেন।
এদিকে মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে বিরোধপূর্ণ জায়গায় কাজ করতে গেলে আয়শাবাগ বাগানের শ্রমিকেরা পাল্লাথল বাগানের ১৫-২০ জন শ্রমিককে জোরপূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যায় বলে বাগানের সহকারী ব্যাবস্থাপক জাকির হোসেন অভিযোগ করেন। এর প্রতিবাদে শ্রমিকেরা ৩ এপ্রিল বুধবার সকাল নয়টা থেকে বাগানে কাজ বন্ধ করে ধর্মঘট পালন করতে থাকে। এ সময় কারখানার সামনের সড়কে জড়ো হয়ে বিভিন্ন শ্লোগানসম্বলিত প্লেকার্ড নিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।
পাল্লাথল চা বাগানের সহকারী ব্যবস্থাপক জাকির হোসেন জানান, আমার বাগানের শ্রমিকেরা অপহৃত শ্রমিকদের ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানাচ্ছে। এছাড়া তারা বিরোধপূর্ণ জায়গার ওপর থেকে স্থাপনা তুলে নেওয়ার দাবি তুলছে।
এ ব্যাপারে আয়শাবাগ চা বাগানের ব্যাবস্থাপক মিজানুর রশীদ আনিত অভিযোগটি মিথ্যা দাবি করে জানান, উল্লেখিত জায়গা আমাদের, চা শ্রমিকরা আমাদের বাগানের।
স্থানীয় ইউপি সদস্য ও খাসিয়া মন্ত্রী লোকাস বাহাদুর জানান, পাল্লাথল ও আয়শাবাগ বাগানের বিরোধপূর্ণ ৫২ একর জায়গা নিয়ে এখনও জরিপ কাজ চলছে। জরিপকালীন একটি প জায়গা দখল নেওয়ায় এলাকার আইন-শৃঙ্খলা অবনতির দিকে চলে যাচ্ছে বলে আমরা আশংকা করছি। এ বিষয়ে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপরে আশু হস্তপে কামনা করেন তিনি।
থানা অফিসার ইনচার্জ কামরুল হাসান জানান, পাল্লাথল-আয়শাবাগ চা বাগানের ভূমি বিরোধ নিয়ে অভিযোগ পেয়েছি। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। উভয়পকে নিয়ে সমঝোতার চেষ্টা চলছে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দ আমিনুর রহমান জানান, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি কোন অবস্থাতে যেন অবনতি না ঘটে সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত