সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মিলানে তাফসিরুল কোরআন মাহফিল অনুষ্টিত



ডেস্ক রিপোর্ট : ইতালির মিলানে সেন্ট্রাল মসজিদের উদ্যোগে তাফসিরুল কোরআন মাহফিল সম্পন্ন হয়েছে.৭ এপ্রিল রবিবার বিকাল ৫ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত মিলানের ভিয়া পাদোভা মসজিদে অনুষ্টিত তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে প্রধান মেহমান হিসাবে তাফসির পেশ করেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন মুফাচ্ছিরে কোরআন মাওলানা সাইয়েদ কামাল উদ্দিন জাফরী.
তিনি বলেন,অন্তরের কোমলতাকে বলে রহমত,যে মুমিন এই কোরআন থেকে হেদায়াত নিতে চান তাদের অন্তরের মধ্যে রহমত বর্ষণ করবে,আর মুমিনরাই এই কোরআন থেকে হেদায়াত প্রাপ্ত হবে.এই কোরআন দুনিয়াতে সকল মানুষকে হেদায়েত করবে না, এই কোরআন যারা মুল্তাকিন আছে তাদের হেদায়েতের পাতেয় হিসাবে থাকবে.আমরা ধারণা করি বিদেশ আসলেই মনে হয় সব কর্মের রিজেক এমনিতেই হয়ে যাবে। রিজেকের জন্য আমরা নিজেরাই যতেষ্ট.পবিত্র কোরআনে আল্লাহ পাক বলেন-দুনিয়ার মধ্যে আমি যে সমস্ত জীব গুলো জন্ম দিচ্চি তারা আমার মেহমান,সুতরাং দুনিয়ার মধ্যে আমি এমন কোনো জীবের জন্ম দেই না যার জন্ম নেওয়ার আগ পর্যন্ত তার জন্য রিজেকের ব্যবস্তা করে রাখি নাই.আমি জন্ম নেওয়ার পূর্বেই তার জন্য থাকা খাওয়ার ব্যবস্তাপনা সহ সব কিছু প্রদান করে থাকি। তিনি আরো বলেন তোমার রুজি রোজ কারের টাকা প্রথমে খরচ করবে তোমার পরিবার পরিজনদের জন্য, কোনো মসজিদ,মাদ্রাসা,গরিবদের ও এতিমখানার জন্য করবে পরে.কারণ এই রোজগারের শতভাগ ভোগ করার অধিকার আছে প্রথম তোমার পরিবারের। আবু হানিফ পাটুয়ারির সভাপতিত্বে মো মুজিবুর রহমান এর পরিচালনায় তাফসির মাহফিলে কোরআন তেলাওয়াত করেন হাফিজুল ইসলাম,বিশেষ মেহমান হিসাবে তাফসির পেশ করেন মিলান কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম হাফিজ মাওলানা জুনায়েদ সোবহান,মিলান সেন্ট্রাল মসজিদের ইমাম হাফ্র্জ মাওলানা আলী হাসান। তাফসিরের শুরুতে হামদ ও নাত পরিবেশন করেন মাহফুজুর রহমান ও জসিম উদ্দিন,। মাগরিবের নামাজের পর উপস্তিত আগত মুসল্লিদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন প্রধান অতিথি সায়েদ কামাল উদ্দিন জাফরী.এই তাফসির মাহফিলে প্রচুর মহিলা উপস্তিত থেকে এই তাফসির এর বয়ান শুনেন.তাদের জন্য মসজিদে আলাদা ভাবে বসার ব্যবস্তা করা হয়।

 

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত