শুক্রবার, ৩ এপ্রিল ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

আমার দেশ সেম্পাদক মাহমুদুর রহমান গ্রেপ্তার



543759_447666955321274_1268542977_nডেস্ক রিপোর্ট : যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচারকের কথিত স্কাইপ কথপোকথন প্রকাশ, ধর্মীয় উস্কানি দেয়া এবং রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে দৈনিক আমার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে কারওয়ান বাজারে আমার দেশ কার্যালয় থেকে মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়।
পরে তাকে মিন্টো রোডে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।
শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চের ব্লগারদের ঢালাওভাবে ‘নাস্তিক’ আখ্যায়িত করে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগে মাহমাদুর রহমানকে গ্রেপ্তারের দাবি জানানো হচ্ছিল বেশ কিছুদিন ধরেই। এ জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে সময়ও বেঁধে দিয়েছিল গণ জাগরণ মঞ্চ।
সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার জ্বালানি উপদেষ্টা মাহমুদুরকে আদালত অবমাননার অভিযোগে এর আগেও কারাগারে যেতে হয়েছে।
গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মাসুদুর রহমান জানান, ২০১২ সালের ডিসেম্বরে কথিত স্কাইপ কথপোকথন আমার দেশে প্রকাশ করার ঘটনায় উচ্চ আদালতের নির্দেশে তেজগাঁও থানায় একটি মামলা করা হয়।
“ওই মামলাতেই সকালে মামুদুর রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।”
মাহমুদুরের বিরুদ্ধে সাইবার অপরাধ (আইসিটি) আইনের ৫৬ ও ৫৭ ধারা এবং দণ্ডবিধির ১২৪ , ১২৪ (এ) , ১২০ (বি) ও ৫১১ ধারায় অভিযোগ আনা হবে বলে মাসুদুর রহমান জানান।
মামলা হওয়ার পর গ্রেপ্তার করতে এতো সময় লাগলো কেন জানতে চাইলে পুলিশ উপ কমিশনার বলেন, “তদন্ত করে তথ্য প্রমাণ পাওয়ার পরই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ জন্যই সময় লেগেছে।”
এদিকে মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে তাৎক্ষকিভাবে আমার দেশ কার্যালয়ের মধ্যে বিক্ষোভ দেখান কর্মীরা।
আমার দেশের প্রতিবেদক মাহবুবুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, পুলিশ তাদের কার্যালয়ে থাকা ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরার ভিডিওফুটেজ এবং ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের কম্পিউটার ও নথিপত্র নিয়ে গেছে।
২০০৮ সালে বিএনপি নেতা মোসাদ্দেক আলী ফালুর মালিকানাধীন আমার দেশের ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব নেন মাহমুদুর রহমান। ওই সময় থেকেই তিনি পত্রিকাটির ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত