মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মাহমুদুর রহমানের মুক্তির দাবীতে শ্রীমঙ্গলে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ



Srimangal Amar Desh manobbondon (1)শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি : দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের মুক্তির দাবীতে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে চৌমুহনা চত্বরে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্টিত হয়েছে। এতে আমারদেশের পাঠক ফোরোমের প্রায় পাঁচ শতাধিক সদস্যরা অংশ নেন। এছাড়া মানববন্ধন ও সমাবেশ চলাকালে রাস্তার চারপাশে শত শত মানুষ অধির আগ্রহভরে বক্তাদের বক্তব্য শোনেন। ১২ এপ্রিল শুক্রবার আমার দেশ পাঠক ফোরামের উদ্যোগে শ্রীমঙ্গল চৌমুহনা চত্তরে আয়োজিত সকাল ১১টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত চলা ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাপ্তাহিক পাঠক ফোরামের উপদেষ্ঠা শ্রীমঙ্গল পরিক্রমা সম্পাদক ও আমার দেশ প্রতিনিধি এম ইদ্রিস আলী, দৈনিক খোলাচিঠি সম্পাদক সরফরাজ আলী বাবুল, হেফাজত ইসলাম শ্রীমঙ্গল শাখার সদস্য সচিব এম এ রহিম নোমানী, দৈনিক ইনকিলাব প্রতিনিধি আনোয়ার হোসেন জসীম, দৈনিক সংগ্রাম প্রতিনিধি আব্দুর রব, নয়াদিগন্ত প্রতিনিধি এম এ রকিব, জনতা প্রতিনিধি সাইফুল ইসলাম, ফটো সাংবাদিক শেখ সোহেল আহমেদ পাঠক ফোরামের শাহাদত হোসেন বকুল,নিয়ামুল হক তরফদার, কাজী আব্দুল গফুর, সেলিম আহমেদ, একলিম মাহমুদ, হেলাল উদ্দিন ভূইয়া, মাহফুজ উদ্দিন,এম এ কাইয়ুম। সমাবেশে বক্তারা বলেন, দেশের কোটি কোটি তৌহিদি জনতার হৃদয়ের প্রাণের স্পন্দন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মহলে বহুল আলোচিত গণমাধ্যম দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার অদম্য সাহসী সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের গ্রেফতারের প্রতিবাদে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার বিভিন্ন পত্রিকার সম্পাদক ও সংগঠনের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা জানানো হয়েছে এবং অবিলম্বে আমারদেশ সম্পাদকের মুক্তির দাবী করা হয়েছে। তাঁরা বলেন, আমারদেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান মানেই বর্তমান সরকারের সকল দুঃশাসন, দুর্ণীতি, লুটপাট নানা কেলেংকারীর বিরুদ্ধে সোচ্চার এক প্রতিবাদী কন্ঠের নাম। মাহমুদুর রহমান মানেই দেশব্যাপী সরকারের সকল অপশাসন ও ফ্যাসিবাদী আচরণ সর্বক্ষেত্রে আধিপত্যবাদ ও আগ্রাসী বাকশালী মনোভাবের বিরুদ্ধে পত্রিকায় কলাম প্রকাশ কারী প্রতিবাদী সাহসী কন্ঠের বহুল আলোচিত নাম। বর্তমান শেখ হাসিনা সরকারের শাসনামলের র্দুণীতি ও দুঃশাসনের বিরুদ্ধে অকোতভয় বীরের ভূমিকা নিয়ে মাহমুদুর রহমান তাঁর প্রতিবাদী কলমের ক্ষুরধার লেখনীর মাধ্যমে গোটা দেশের মানুষের মধ্যে তিনি চিন্তার ক্ষেত্রে ব্যাপক পরিবর্তন এনে দিয়েছেন, সমাজে প্রতিবাদী ঢেউ ও অধিকার আদায়ের জাগরণ তুলেছেন। তিনি মানুষদের মধ্যে দেশব্যাপী যে নতুন চিনত্মা ও চেতনার শক্তি এনে দিয়েছেন। সরকার পরিবর্তনের ঢেউ তুলেছেন। তার গ্রেফতারের মাধ্যমে সেই মহাজাগরণ কিছুতেই আর দমানো যাবে না। কাজেই শেখ হাসিনা সরকার রাষ্ট্রযন্ত্রকে কাজে লাগিয়ে দমন পীড়নের যে ভয়ংকর খেলায় মেতে উঠেছেন তা কোনও ভাবে কাজে আসবে না বলে তারা সরকারকে সর্তক করে দিয়েছেন। এ দিকে আমার দেশ সম্পাদকের বিরদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যামামলা প্রত্যাহার, মামুদুর রহমানের মুক্তির দাবী ও অবিলম্বে আমারদেশের ছাপা খানার তালা খুলে পত্রিকা প্রকাশের দাবী জানিয়ে বিবৃতি প্রদান করেছেন তাঁরা হলেন, বিশিস্ট আলেমে দ্বীন বরুনার পীর আলামা মুফতি রশীদুর রহমান ফারুক, সাবেক প্রতিমন্ত্রী এবাদুর রহমান চৌধুরী, বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি এম নাছের রহমান, সাধারণ সম্পাদক বেগম খালেদা রব্বানী, সাবেক এমপি মোঃ আহাদ মিয়া, শ্রীমঙ্গল উপজেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল হাই, সহ সভাপতি এম আবুল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক তাজুল ইসলাম, মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র ফয়জুল করিম ময়ুন, কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মতিন বক্স, এনটিভির জেলা প্রতিনিধি এসএম উমেদ আলী, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি জেলা কমিটির সভাপতি সৈয়দ হুমায়েদ আলী শাহীন, সেক্রেটারি আনহার আহমেদ সমশাদ, যুগ্ম সম্পাদক শাহজান আহমদ, সাপ্তাহিক শ্রীভূমি পত্রিকার সস্পাদক ইসমাইল মাহমুদ, হেফাজতে ইসলাম শ্রীমঙ্গল উপজেলা আহ্বায়ক হাফেজ মাও. আব্দুর রউপ, হেফাজতে ইসলাম শ্রীমঙ্গল উপজেলার সিনিয়র আহবায়ক ও খেলাফত মজলিস মৌলভীবাজার জেলা উপদেষ্ঠা কাজী জামাল আহমদ, খেলাফত মজলিস শ্রীমঙ্গল উপজেলা সভাপতি মাওলানা আয়েত আলী, শ্রীমঙ্গল জামেয়া ইসলামিয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুস শাকুর, শ্রীমঙ্গল উপজেলা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মাও ফেরদাউস আহমদ, প্রাবন্ধিক ও কলামিস্ট মাওলানা এহসান বিন মুজাহির, ছাত্র মজলিস সাবেক মৌলভীবাজার জেলা সেক্রেটারি রেজওয়ান আহমদ চৌধুরী, মাওলানা কাজী শিহাব উদ্দিন, শ্রীমঙ্গল উপজেলা মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা ফেরদাউস আহমদ, ছাত্র মজলিস সাবেক মৌলভীবাজার জেলা সেক্রেটারি রেজওয়ান আহমদ চৌধুরী, প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুশ শাকুর, মুহাদ্দিস মাওলানা রফিকুল ইসলাম, আল আত্তার মসজিদের ইমাম মাওলানা হায়দর আলী, ভাড়াউড়া মসজিদের ইমাম মাওলানা মারুূফ আহমদ, ইকরা স্কুলের শিক্ষক মাওলানা নুরুল ইসলাম, মাওলানা আবুল কালাম, হাফেজ মাওলানা মামুন, বরুনার পীর সাহেবের ছেলে মাওলানা আফজল হামিদী, ইসলামী ছাত্র মজলিস মৌলভীবাজার জেলা সেক্রেটারি মুহাম্মদ এহসানুল হক, জাতীয় পার্র্টির উপজেলা সেক্রেটারি কামাল আহমদ, দেওয়ান রশীদ বিন মুসা চৌধুরী মাওলানা মুফতি মনির উদ্দিন, ছাত্র মজলিস শ্রীমঙ্গল উপজেলা সভাপতি মাসুক চৌধুরী, মাওলানা মাহমুদ, সাজ্জাদুর রহমান নৌসাদ, সাইফ উদ্দিন সাবলু, আবিদুর রহমান সোহেলে, মোঃ ফারুক আহমেদ, শুয়াইবুর রহমান, আরিফ হাসান শাওন জব্বর আলী। বিবৃতিদাতারা বলেন, নির্ভিক কলম সৈনিক ও গনতন্ত্রের ভ্যানগার্ড খ্যাত মাহমুদুর রহমানকে গ্রেফতারের মাধ্যমে বর্তমান ফ্যাসিস্ট সরকার দেশের গনতন্ত্রের শেষে কফিনে পেরেক ঠুকেছে এবং সরকার বিরোধী মত প্রকাশের অন্যতম ও একমাত্র গনমাধ্যমের অবাধ মত প্রকাশের স্বাধীনতায় সাইক্লোন বা টর্ণেডোর মতো করে আঘাত হেনেছে। এর মাধ্যমে দেশের গনতন্ত্র ও অবাধ মতপ্রকাশের স্বাধীনতার পথ রুদ্ধ হলো। জনগন তাঁর প্রকৃত সত্য জানার অধিকার থেকে বঞ্চিত হলো।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত