বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মৌলভীবাজারে প্রতিমন্ত্রীর অনুষ্টান বর্জন করলেন সাংবাদিক ও আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ



মৌলভীবাজার প্রতিনিধি : ম্যালেরিয়া দিবস উপলক্ষে মৌলভীবাজারে ব্রাকের সহায়তায় ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। গতকাল ২৬ এপ্রিল শুক্রবার সকালে আয়োজন করা হয় মশা মারতে হাতি র‌্যালি। সাভার ট্রাজেটির এই সময়ে জাকজমক পূর্ন এই আয়োজন নিয়ে শহরজুড়ে চলছে ব্যাপক সমালোচনার ঝড়। এতে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন (অবঃ) মুজিবুর রহমান ফকির এম,পি। তবে প্রতিমন্ত্রীর কোন অনুষ্ঠানে জেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের কোন নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন না। সাভার ট্রাজেডির এই সময়ে ম্যালেরিয়া দিবস উপলক্ষে জাকজমকপূর্ন র‌্যালী শেষে স্থানীয় সাইফুর রহমান অডিটোরিয়ামে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী ক্যাপ্টেন (অবঃ) মুজিবুর রহমান ফকির বলেন, স্বাস্থ্য সেবার সর্বোচ্চ মান উন্নয়ন শহর থেকে প্রত্যন্ত অঞ্চলের জনগণের দ্বারে দ্বারে পৌছে দিতে সরকার বদ্ধ পরিকর। এ লক্ষ্যে ম্যালেরিয়ার হাত থেকে মানুষকে রক্ষায় সরকার ব্যাপক কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এরই ধারাবাহিকতায় মৌলভীবাজারে আজকের কার্যক্রম। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদ প্রশাসক আজিজুর রহমান, জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, সিভিল সার্জন গোলাম রাজ্জাক চৌধুরী, তত্বাবধায়ক ডা. দীনেশ সুত্রধর, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ডা. আব্দুল মান্নান প্রমুখ। অপরদিকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী মৌলভীবাজারে র‌্যালি, আলোচনাসভা ও সদর উপজেলার সাধুহাটি কমিউনিটি ক্লিনিকে ম্যালেরিয়া নির্মূল কার্যক্রম উদ্বোধন করলেও জেলা আওয়ামীলীগের কোন নেতা-কর্মী এই সব অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন না। মন্ত্রীর অনুষ্ঠানে উপস্থিত না থাকা সম্পর্কে জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক নেছার আহমদ বলেন, সচরাচর মন্ত্রী কিংবা গুরুত্বপূর্ণ কোন ব্যক্তির আগমন উপলক্ষে যেভাবে জেলা পর্যায়ে প্রস্তুতি নেওয়া হয় সে ধারাবাহিকতা ম্যালেরিয়া দিবসের কর্মসূচিতে অনুপস্থিত থাকায় তাতে অংশ গ্রহন করিনি। জেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মসুদ আহমদ বলেন, মন্ত্রীর অনুষ্ঠান সম্পর্কে কোন কিছু জানা নেই তাই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবো কেমন করে। স্বাস্থ্য মেলা পরিদর্শন শেষে দেশ টিভির মৌলভীবাজার প্রতিনিধি প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য নিতে চাইলে তিনি দেশ টিভি ও মিডিয়া সম্পর্কে অবমাননাকর মন্তব্য করলে উপস্থিত স্থানীয় সাংবাদিকরা অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করেন। দেশ টিভির প্রতিনিধি সালেহ এলাহী কুটি জানান, মন্ত্রীর বক্তব্য নিতে গেলে তিনি বলেন দেশ টিভি এখানেও আছে! মিডিয়া কি করতে পারে? এ ধরনের কথা বলে তিনি সভাস্থলের দিকে চলে যান। এরপর উপস্থিত সাংবাদিকরা ক্ষোভ প্রদর্শন করে অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করেন। এদিকে সাভারে ভবন ধসের ঘটনায় সারা জাতি যখন শোকাহত, প্রতিটি মানুষ নিজ নিজ সামর্থ অনুসারে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন, জেলা পর্যায়ে চলছে রক্ত সংগ্রহ, দোয়া ও মোনাজাত। স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রীর উপস্থিতিতে সে সময়ে মশা মারতে হাতি র‌্যালী, বিরিয়ানী দিয়ে শত শত মানুষের দুপুরের খাবারসহ নানান আয়োজন। এই সময়ে এ ধরনের আয়োজন কতটুকু যুক্তি সংগত এই নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন স্থানীয় বিবেকবান মানুষরা।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত