শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বড়লেখায় আওয়ামীলীগ নেতাকে হত্যা চেষ্টা : গ্রেফতার ২



বড়লেখা প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের বড়লেখায় গত শনিবার রাতে আওয়ামীলীগ নেতাকে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে জামায়াত-শিবির ক্যাডাররা। সন্ত্রাসীদের এলোপাতাড়ি চাপাতির কোপে মারাত্মক আহত হয়ে তিনি বর্তমানে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় আতংকে রয়েছেন আওয়ামীলীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
থানা পুলিশ সূত্র জানায়, উপজেলার কাঁঠালতলী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মঈজ উদ্দিন (৪৫) গত শনিবার রাত ১০ টার দিকে বাজার থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় তার সাথে ছেলে ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি এমরান আহমদও ছিলেন। মাধবকু-গামী সড়কের টাকি নামক স্থানে পৌছামাত্র ১০/১৫ জনের একদল সন্ত্রাসী তাকে ও তার ছেলেকে চাপাতি দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপায়। এতে তিনি মারাত্মক আহত হয়ে লুটিয়ে পড়লে তার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে গিয়ে তাদের উদ্ধার করেন। মারাত্মক আহত মঈজ উদ্দিনকে সাথে সাথে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। হামলার শিকার এমরান আহমদ জানান, এর আগে জামায়াত-শিবির ক্যাডাররা বাড়িতে কাফনের কাপড় পাঠিয়েছে। তাছাড়া নানাভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল। ঘটনার রাতে সন্ত্রাসীরা তাদেরকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে। দা দিয়ে কুপিয়ে আহত করে তাকেসহ তার পিতাকে। এ ঘটনায় শনিবার রাতেই এমরান আহমদ বাদী হয়ে হত্যা চেষ্টা মামলা (নং-২১) করেন। মামলার প্রেক্ষিতে রোববার ভোররাতে সদর ইউনিয়নের মুছেগুল গ্রামের মৃত আব্দুস শুকুরের ছেলে নজরুল ইসলাম আছার (৪০) ও কাঁঠালতলী উত্তরভাগ গ্রামের আকবর আলীর ছেলে মশারফ আলীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। রোববার দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বড়লেখা থানার এসআই কাওসারুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত