সোমবার, ১১ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে পৃথক দু’টি ডাকাতির ঘটনায় লুট ১০ লাখ টাকার মালামাল



মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের ছনগাঁও গ্রামে এক সৌদি প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। ৭/৮ জনের মুখোশধারী ডাকাতদল দেশীয় অস্ত্রের মুখে পরিবার সদস্যদের জিম্মি করে নগদ ২ লাখ ১৫ হাজার টাকা, ৮ ভরি স্বর্ণালংকার, মোবাইল ফোন, কাপড়সহ ৮ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে। স্থানীয় ইউপি সদস্য মনিন্দ্র সিংহ জানান, রোববার রাত প্রায় ২টায় কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের ছনগাঁও গ্রামের সৌদি প্রবাসী হাজী মতলিব মিয়ার ঘরের দরজা ভেঙ্গে ৭/৮ জনের মুখোশধারী একদল ডাকাত ঘরে প্রবেশ করে। ডাকাতরা দেশীয় অস্ত্রের মুখে পরিবার সদস্যদের জিম্মি করে নগদ ২ লাখ ১৫ হাজার টাকা, ৮ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার, ১টি মোবাইল ফোন, কাপড়সহ ৮ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। সোমবার (১৩ মে) সকালে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় সৌদি প্রবাসী হাজী মতলিব মিয়া বাদী হয়ে সোমবার দুপুরে থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করেছেন। কমলগঞ্জ থানার ওসি নীহার রঞ্জন নাথ জানান, এটি ডাকাতির ঘটনা নয়। তবে পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। 
এদিকে কমলগঞ্জের মাধবপুর চা বাগানে বসবাসরত বাগান কর্মচারীর বাসায় ডাকাতি হয়েছে। সোমবার (১৩ মে) ভোররাত ৪টায় ঘরের দরজা ভেঙ্গে ৪/৫ জনের একদল ডাকাত ঘরের লোকজনকে বেঁধে নগদ অর্থ, স্বর্ণালংকার ও মোবাইল ফোনসহ দেড় লড়্গাধিক টাকার মালামাল নিয়ে যায়। সূত্র জানায়, মাধবপুর চা বাগানের বড়বাবু গিয়াস উদ্দিনের বাসার দরজা ভেঙ্গে ঘরের ভিতর প্রবেশ করে ডাকাতদল। ঘরের লোকজনের হাত-চোখ বেঁধে ৫টি মোবাইল ফোন, নগদ ১০ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়। ডাকাত দল গৃহকর্তী আনোয়ারা বেগমের পরনে থাকা আড়াই ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার লুট করে নেয়। চা বাগান কর্মচারী গিয়াস উদ্দিন জানান, ডাকাতদল তাকে ও তার ছেলেকে বেঁধে অর্থসহ মালামাল লুট করে নেয়। এ ব্যাপারে মাধবপুর চা বাগানের পড়্গে কমলগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ করা হয়েছে। কমলগঞ্জ থানার ওসি নিহার রঞ্জন নাথ জানান, জোর পুলিশি তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে বুঝা যাবে এটি ডাকাতি না বড় ধরণের চুরি।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত