রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাজ্যে মুসলিমদের প্রতি ক্ষোভ



Gurdienডেস্ক রিপোর্ট : যুক্তরাজ্যে সন্ত্রাসী হামলায় এক সেনা নিহতের পর মুসলমানদের ওপর হামলার ঘটনা বেড়েছে।
ধর্মীয় উগ্রপন্থা নিরসনে সক্রিয় সংস্থা ফেইথ ম্যাটার্স জানিয়েছে, বুধবারের ওই হত্যাকাণ্ডের পর মুসলমানদের প্রতি হামলা ও অবমাননাকর ১৬২টি ঘটনার খবর তাদের কাছে এসেছে, যেখানে আগে দিনে গড়ে ছয়টি এ ধরনের ঘটনার খবর পেতেন তারা।
গত বুধবার দুপুরে লন্ডনের দক্ষিণ-পূর্ব শহর উইলউইচে সেনা
ব্যারাকের কাছে দুই সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ড্রুমার লি রিগবি নামের এক সেনা সদস্যকে হত্যা করে।
পথচারীর ধারণ করা ওই ঘটনার ভিডিওচিত্রে দেখা যায়, ২৮ বছর বয়সী মাইকেল আদেবোলাজো নামের একজন কৃষ্ণাঙ্গ ওই সেনা সদস্যের ওপর হামলা চালাচ্ছেন।
রক্তাক্ত চাপাতি হাতে তিনি বলছেন, “ডেভিড ক্যামেরনের কারণে ব্রিটিশ সরকার আরব দেশগুলোতে সেনা পাঠিয়েছে। আমরা আল্লাহর নামে প্রতিজ্ঞা করছি এ লড়াই থামাবো না। কারণ মুসলমানরা প্রতিদিন মারা যাচ্ছে।”
হামলার পরপরই ঘটনাস্থল থেকে আদেবোলাজো ও মাইকেল আদেবোয়ালে (২২) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
এ ঘটনার পর থেকে ইন্টারনেটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ও রাস্তাঘাটে মুসলমানদের প্রতি হামলার ঘটনা ঘটছে বলে জানান ফেইথ ম্যাটার্সের পরিচালক ফায়াজ মুঘল।
বিবিসিকে তিনি বলেন, “এ ধরনের ঘটনা ছড়িয়ে পড়াটা উদ্বেগজনক। দেশের বিভিন্ন জায়গায় এ ধরনের ঘটনা ঘটছে।”
“দ্বিতীয়ত, এসব ঘটনার বেশ কয়েকটি খুবই আক্রমণাত্মক। তৃতীয়ত, অনলাইনেও ধর্মীয় বিদ্বেষমূলক ঘটনা ঘটছে।”
এসব ঘটনার জন্য বুধবার থেকে শুক্রবার পর‌্যন্ত বেশ কয়েকজনকে আটক করেছে পুলিশ। টুইটারে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগে বৃহস্পতিবার লিঙ্কন থেকে বেঞ্জামিন ফ্ল্যাটারস (২২) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। একই অভিযোগ আসায় সেখানে আরেকজনকে সতর্ক করেছে পুলিশ।
সেনা সদস্যকে হত্যার ঘটনা নিয়ে টুইটারে আক্রমণাত্মক মন্তব্যের জন্য ব্রিস্টলে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধর্মীয় বিদ্বেষ উস্কে দেয়ার অভিযোগ আনা হয় তাদের বিরুদ্ধে।
এদিকে, বৃহস্পতিবার লন্ডনের একটি রেস্তোরাঁয় ধর্মীয় বিদ্বেষমূলক আচরণের জন্য টোনি ল্যাটকল (৩২) ও ইউজেন-বেরেডি (৩৪) নামে দুজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
অনলাইনে ‘আক্রমণাত্মক’ মন্তব্যের জন্য শুক্রবার উলউইচের কিংসম্যান স্ট্রিট থেকে অ্যাডাম রজার্স (২৮) নামে একজন গ্রেপ্তার হন।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত