শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

অবিশ্বাস্য ও ভয়ংকর যত খাবার! (পর্ব-১)



South-Korea-Food-Festival-Eating-Live-Octopus-Blokeনিউজ ডেস্ক :: মানুষ তো কতকিছুই খেয়ে থাকে। ঘাস, লতা-পাতা থেকে শুরু করে বিশাল উট পর্যন্ত খাবার হিসেবে থালায় সাজিয়ে নেয় কেবল নিজের রসনাকে তৃপ্ত করতে। কিন্তু তারপরেও মাঝে মাঝে এমন অদ্ভুত আর ভয়াবহ সব জিনিস খেয়ে থাকে মানুষ যে শুনলেও গা শিউরে ওঠে, কিংবা অবিশ্বাস আর বিস্ময় জেঁকে ধরে। কিন্তু কী এমন সেই খাবারগুলো? পৃথিবীতে খাবার হিসেবে দেশে দেশে প্রচলিত এমন কিছু অবাক করা আর ভয়ংকর সব খাবার নিয়েই আজকের এই আয়োজন।
১. কাঁপতে থাকা সাপের কলিজা
হানোয়ের কাছে অবস্থিত ভিয়েতনামের গ্রাম লি ম্যাটের কথা বলছি। ওখানকার খুব জনপ্রিয় একটি খাবার হচ্ছে সাপের কলিজা। অন্য অনেক স্থানেও পাওয়া যায় এই খাবারটি। তবে সেসব জায়গায় সাপটা ঠিক অতটা জীবন্ত থাকেনা যতটা না থাকে এই ভিয়েতনামের গ্রামটিতে। আরো অনেক খাবারের নামই আছে এখানকার খাবারের দোকানগুলোর তালিকায়। তার ভেতরে কোবরার দিকে আঙ্গুল তাক করলেই প্রথমে আপনার সামনেই কেটে ফেলা হবে সাপকে। গ্লাস ভর্তি করে তার রক্ত নিয়ে পরিবেশ করা হবে আপনার সামনে। খানিক বাদে দেওয়া হবে সাপের বিষ। অবশ্য শিরায় না ঢেলে খেয়ে ফেললে মানুষের খুব একটা সমস্যা হয়না সাপের বিষে। ফলে একটা ভিন্নরকম পানীয় দিয়ে শুরু করার সাথে সাথেই আপনার সামনে হাজির হবে এক বাটি ভাতের ওপরে ছড়ানো সাপের কাঁচা মাংস, চামড়া আর অন্যান্য জিনিসগুলো। এবং সবশেষে আপনি দেখা পাবেন সাপের সেই কলিজার, যেটা কিনা তখনো কাঁপছে !
২. মাতাল চিংড়ি
কেমন হবে বলুন তো যদি একটি চিংড়িকে গেলানো হয় প্রচুর পরিমাণে মদ? ঠিক ধরেছেন। অবশ হয়ে যায় চিংড়িগুলো। সেই সাথে হয়ে যায় আরো বেশি তৃষ্ণার্ত। তাদের সামনে তখন যেটাই দেওয়া হয় খাওয়ার চেষ্টা করে তারা। আর এভাবেই মাতাল হয়ে সব ধরনের মশলা আর দরকারী উপাদান নিজের ভেতরে শুষে নেয় তারা। এরপরের কাজটা অবশ্য মানুষের। একেকটা করে চিংড়িকে তুলে নেওয়া আর সসে ডুবিয়ে মুখের ভেতরে পুরে ফেলা। ভাবছেন, চিংড়িটাকে মারা হল কখন? কে বলেছে ওটা মৃত? জীবন্ত অবস্থাতেই ওগুলোকে খেয়ে নেয় মানুষ। এটাই নিয়ম আর বলতে গেলে পৃথিবীর নানা স্থানের বেশ জনপ্রিয় নিয়ম।
৩. জীবন্ত অক্টোপাস
অক্টোপাস খাবার কথা ভেবেছেন কখনো? কিংবা খেয়ে দেখেছেন? ভাবছেন, আপনি খাননি তাতে কি! অক্টোপাস খাওয়া যেতেই পারে। হ্যাঁ! তা তো খাওয়া যায়ই। কিন্তু কেমন হবে যদি সেটা হয় জীবন্ত? ওডোরি ডন নামে জাপানি আর কোরিয়ান একটি খাবারের এই বিশেষ পদে একটি ছোটখাটো সামুদ্রিক অক্টোপাসকে রাখা হয় সুন্দর করে সাজানো একটি পাত্রে। সেসময়ের সবচাইতে কঠিন কাজটা হয় জীবন্ত অক্টোপাসের বারবার নড়তে থাকা পাগুলোর ওপরে সস ঢেলে সেটাকে খাওয়াটা। বৈজ্ঞানিক দৃষ্টিকোন থেকে অবশ্য তখন জীবন্ত মনে করা হয়না অক্টোপাসটিকে। কারণ পাত্রে দেওয়ার আগে এর মগজ বের করে নেওয়া হয়। ফলে প্রচন্ড নড়াচড়া করতে থাকলেও মৃত বলে মনে করা হয় এটিকে। সানাকজি ধরনের এ খাবারের ভক্তরা মনে করেন, এখনকার ভেজালের যুগে সত্যিকারের আসল খাবার এটি। যেটা মুখে দেওয়ার পর এর নড়াচড়া দ্বারা ক্ষুধাবৃদ্ধি করে এবং জানান দেয় যে এটি সত্যিই খাঁটি!

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত