মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মালয়েশিয়ায় শরিয়াভিত্তিক বিমান চালু হলো



full_1109955987_1450860079নিউজ ডেস্ক: দীর্ঘদিন ধরেই মালয়েশিয়া আধুনিক ইসলাম চর্চা করে আসছে। এরই জের ধরে মালয়েশিয়ায় ইসলামী নিয়ম অনুযায়ী পরিচালিত বিমান চালু হয়েছে। যেসব খাবার পরিবেশন করা হবে, তার সবই শতভাগ হালাল খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে এ বিমানে। যেকোনো ধরনের মদ পান কঠোরভাবে নিষিদ্ধ হবে।

রায়ানি এয়ার নামে এই বিমানটি সোমবার কুয়ালালামপুর থেকে লংকাওয়ি দ্বীপের উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

ইসলামের বিধান অনুযায়ী পোশাক মুসলিম কেবিন ক্রু যাত্রীদের সেবায় নিয়োজিত ব্যক্তিরা। এছাড়া অমুসলিম কেবিন ক্রুদেরও শালীন পোশাক পরতে হয়। বিমানটি উড্ডয়নের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তিলাওয়াত করা হয়।

ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে বলা হয়, রায়ানি এয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাফর জামহারি জানিয়েছেন, প্রথমবারের মতো তারা মালয়েশিয়ায় পুরোপুরি ইসলামী শরিয়াভিত্তিক এবং ইসলামী নিয়মনীতি অনুযায়ী বিমান চালু করেছেন। ভবিষ্যতে তাদের শরিয়াভিত্তিক সেবার মান আরো উন্নত করা হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

ইসলামী নিয়ম অনুযায়ী শূকরের মাংস বা এ থেকে উৎপন্ন যেকোনো ধরনের খাবার, অ্যালকোহল বা মদ, হালাল উপায়ে জবাই না করা পশুর মাংস খাওয়া বা গ্রহণ করা হারাম। ইসলাম এসব খাবার খাওয়ার অনুমতি দেয় না।

তবে সাম্প্রতিক সময়ে সেখানে রক্ষণশীল মনোভাব বাড়ছে। কিছুদিন আগেই একটি প্রতিষ্ঠান মালয়েশিয়ায় হালাল বোতলজাত পানি বিক্রি শুরু করেছে।

নিউজ ডেস্ক: দীর্ঘদিন ধরেই মালয়েশিয়া আধুনিক ইসলাম চর্চা করে আসছে। এরই জের ধরে মালয়েশিয়ায় ইসলামী নিয়ম অনুযায়ী পরিচালিত বিমান চালু হয়েছে। যেসব খাবার পরিবেশন করা হবে, তার সবই শতভাগ হালাল খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে এ বিমানে। যেকোনো ধরনের মদ পান কঠোরভাবে নিষিদ্ধ হবে।

রায়ানি এয়ার নামে এই বিমানটি সোমবার কুয়ালালামপুর থেকে লংকাওয়ি দ্বীপের উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

ইসলামের বিধান অনুযায়ী পোশাক মুসলিম কেবিন ক্রু যাত্রীদের সেবায় নিয়োজিত ব্যক্তিরা। এছাড়া অমুসলিম কেবিন ক্রুদেরও শালীন পোশাক পরতে হয়। বিমানটি উড্ডয়নের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তিলাওয়াত করা হয়।

ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে বলা হয়, রায়ানি এয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাফর জামহারি জানিয়েছেন, প্রথমবারের মতো তারা মালয়েশিয়ায় পুরোপুরি ইসলামী শরিয়াভিত্তিক এবং ইসলামী নিয়মনীতি অনুযায়ী বিমান চালু করেছেন। ভবিষ্যতে তাদের শরিয়াভিত্তিক সেবার মান আরো উন্নত করা হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

ইসলামী নিয়ম অনুযায়ী শূকরের মাংস বা এ থেকে উৎপন্ন যেকোনো ধরনের খাবার, অ্যালকোহল বা মদ, হালাল উপায়ে জবাই না করা পশুর মাংস খাওয়া বা গ্রহণ করা হারাম। ইসলাম এসব খাবার খাওয়ার অনুমতি দেয় না।

তবে সাম্প্রতিক সময়ে সেখানে রক্ষণশীল মনোভাব বাড়ছে। কিছুদিন আগেই একটি প্রতিষ্ঠান মালয়েশিয়ায় হালাল বোতলজাত পানি বিক্রি শুরু করেছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত