বৃহস্পতিবার, ৭ মে ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ বৈশাখ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Sex Cams

পৌর নির্বাচন নিজেদের দখলে রাখার পাঁয়তারা করছে আ’লীগ



bnpনিউজ ডেস্ক :: ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সন্ত্রাস ও ভোট কারচুপির মাধ্যমে আগামীকালের পৌর নির্বাচন নিজেদের দখলে রাখার নানাবিধ পাঁয়তারা করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির যুগ্ন মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।
আজ মঙ্গলবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি।
রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেন, এবারে শাসকদল দলীয় ভিত্তিতে পৌর নির্বাচন করছে, যার লক্ষ্য হচ্ছে-তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত প্রশাসনকে দলীয়করণ করে বাংলাদেশকে আওয়ামী নাৎসী রাষ্ট্রের চূড়ান্ত রুপ দান করা। এজন্য আওয়ামী শাসকগোষ্ঠী সন্ত্রাস ও ভোট কারচুপির মাধ্যমে আগামীকালের পৌর নির্বাচন নিজেদের দখলে রাখার নানাবিধ পাঁয়তারা করছে।
নির্বাচন কমিশন ও সরকারী প্রশাসন ক্ষমতাসীনদের বেআইনী সহিংসতার নিরাপত্তা দিতে সিকিউরিটির দায়িত্ব পালন করছেন অভিযোগ করে তিনি বলেন, শাসকগোষ্ঠীর সংগঠিত বর্তমান ‘খয়ের খাঁ’ নির্বাচন কমিশনের আমলে গোটা নির্বাচনী ব্যবস্থাটাই ছিন্নভিন্ন ও বিপর্যস্ত হয়ে গেছে। নিজেদের লোকবল থাকা সত্বেও ২৩৪টি পৌরসভার মধ্যে ১৭৫টিতে জনপ্রশাসন থেকে রিটার্নিং অফিসার নেয়া হয়েছে, যা দুরভীসন্ধিমূলক। কারণ জনপ্রশাসনের রিটার্নিং অফিসাররা নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ মানতে চান না।
রিজভী অভিযোগ করে বলেন, গত পরশু রাত থেকেই অধিকাংশ পৌর নির্বাচনী এলাকায় চলছে নিরব ও প্রকাশ্য গ্রেফতার ও হুমকি অভিযান। ১০/১২টি মাইক্রোবাসসহ আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কনভয় হঠাৎ করে ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী, সমর্থক ও ভোটরদের বাসায় গিয়ে হুমকি দিয়ে বলছে, আপনারা ভোটারদেরকে বেআইনীভাবে প্রভাবিত করাসহ নানাবিধ আচরণবিধি লঙ্ঘন করছেন।
এসময় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে রিজভী বলেন, নির্বাচনে বিশৃঙ্খলা ও অপকীর্তির রেকর্ড তৈরী করে নির্বাচন নিয়ে সরকারের ঘৃণ্য পরিকল্পনা ব্যর্থ করে দিতে নির্ভীক, অকম্প ও অবিচলভাবে সরকারের মদগর্বী আস্ফালন অগ্রাহ্য করে আগামীকাল ভোট প্রদান করতে হবে এবং ভোটের ফলাফল না পাওয়া পর্যন্ত ভোটকেন্দ্রে অবস্থান করতে হবে। উদ্দীপ্ত বদ্ধপরিকরভাবে যেকোন চক্রান্তকে নস্যাৎ করে দিয়ে ভোট প্রদান নিশ্চিত করতে হবে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত