বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সিলেটে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর



PM_sylhet_bg3_835132126নিউজ ডেস্ক:: সিলেটে শিগগির মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একইসঙ্গে দেশের সব বিভাগেও মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) বিকেলে সিলেট আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় বক্তৃতাকালে প্রধানমন্ত্রী এ কথা জানান।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ছিল না। আওয়ামী লীগই এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেছে। আমাদের লক্ষ্য সব বিভাগেই মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হবে। দ্রুতই সিলেটে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় করে দেবো।

প্রধানমন্ত্রী তার সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরে বলেন, সিলেটে আজ ২২টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছি। আমরা সিলেট বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক করেছি। এর কাজ আমরা শুরু করেছিলাম, কিন্তু বিএনপি এসে সে কাজ বন্ধ করে দেয়।

‘বিমান এখন লন্ডন থেকে সরাসরি সিলেটে আসে। ঢাকা-লন্ডন সরাসরি ফ্লাইট চালু করেছি। বিমানকে উন্নত করেছি। আমাদের লক্ষ্য ছিল, ডিজিটাল বাংলাদেশ করবো, করেছি। থ্রি-জি চালু করেছি, দ্রুতই ফোর-জি চালু করা হবে।’

তিনি বলেন, দেশে শিক্ষার সম্প্রসারণ হচ্ছে। বিজ্ঞান ও কম্পিউটার শিক্ষার এর মধ্যে অন্যতম। দেড় কোটি মানুষকে চাকরির ব্যবস্থা করে দিয়েছি। লাখো মানুষকে বিদেশে চাকরির ব্যবস্থা করেছি। প্রত্যেকটি ছেলে-মেয়ে আজ এগিয়ে যাচ্ছে, কর্মসংস্থান হয়েছে। কেউ বেকারত্বের অভিশাপ নিয়ে ঘুরে বেড়াবে না। সারা বাংলাদেশে অর্থনৈতিক অঞ্চল করছি, যেন কেউ বসে না থাকে। আমরা বেতন বাড়িয়ে দিয়েছি। কোনো সরকার ১২৩ শতাংশ বেতন বাড়াতে পারেনি, আমরা করেছি।

শিক্ষা খাতের উন্নয়নেও প্রধানমন্ত্রী তার সরকারের নানা পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, এক কোটি ২৮ লাখ ছাত্র-ছাত্রীকে বৃত্তি এবং উপবৃত্তি দিয়ে যাচ্ছি। বিনা পয়সায় বই দিচ্ছি। এবারও ঠিক সময়ে শিশুদের হাতে হাতে বই পৌঁছে দিয়েছি।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, লেখাপড়া শিখতে হবে। মনোযোগ দিয়ে পড়াশোনার সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছি। শিক্ষার্থীদের এগিয়ে যেতে হবে। কারণ, পড়াশোনা না শিখলে ভবিষ্যতে তারা কোনো কাজে আসবে না। সে সুযোগ কাজে লাগিয়ে শিক্ষার্থীরা এগিয়ে যাবে।

এসময় বিএনপি-জামায়াত জোটের আন্দোলনের সমালোচনাও করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, তারা নির্বাচন বানচালের নামে যেভাবে মানুষ হত্যা করেছিল, সেটা পৃথিবীর ইতিহাসে আর আছে কিনা জানি না। কেউ রেহাই পায়নি খালেদার প্রতিহিংসা থেকে।

‘মায়ের সামনে মেয়ে, বাবার সামনে মেয়েকে আগুনে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। পেট্রোল বোমা দিয়ে মানুষ হত্যা করা হয়েছে। প্রত্যেকের বিচার বাংলার মাটিতে করবো।’

‘আমরা চাই শান্তি, ওরা চায় অশান্তি। আওয়ামী লীগ চায় ন্যায় প্রতিষ্ঠা হোক, ওরা চায় লুটপাট।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় আসে দেশের উন্নয়ন করে। ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে জয়লাভ করেও আমরা উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছি।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে স্বপ্ন দেখেছেন, সে অনুযায়ী স্বাধীনতার সুফল মানুষের দ্বারে দ্বারে পৌঁছে দেওয়াই আওয়ামী লীগের লক্ষ্য বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে, জনসভা মঞ্চের পাশে সিলেটের ২২টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী। তারপর দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে মোনাজাত করেন তিনি।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত