বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বিএনপি-জামায়াতের ১৫ জনের যাবজ্জীবন



nasokota20160202152426নিউজ ডেস্ক::
নাশকতার মামলায় বিএনপি-জামায়াতের ১৫ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়াও ১৩ জনকে ৫ বছর কারাদণ্ড দেয়া হয়। একই সঙ্গে ৩২ জনকে খালাস দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজশাহী দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক গোলাম আহমেদ খলিলুর রহমান এ রায় দেন।
মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণ থেকে জানা গেছে, ২০১৩ সালে ১১ ডিসেম্বর সকালে জামায়াতের ডাকে হরতাল ও বিএনপির ডাকে অবরোধ চলছিল। ওই দিন বিএনপি-জামায়াতের নেতা-কর্মী ও সমর্থকেরা সিরাজগঞ্জ থানার ফকিরতলা বেইলি ব্রিজের পাটাতন তুলে নাশকতা চালায়। এ সময় বাধা দিতে গেলে তারা পুলিশের ওপর হামলা করে। এ ঘটনায় ওই দিন সিরাজগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফারুক হোসেন বাদী হয়ে ৪০ জনের নামে মামলা করেন। মামলার তদন্ত শেষে ৬০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয়া হয়।

মঙ্গলবার রায় প্রকাশের দিনে ৩৫ জন আসামি উপস্থিত ছিলেন। যার মধ্যে যাবজ্জীবনপ্রাপ্ত আসামিদের মধ্যে একজন আদালতে উপস্থিত ছিলো।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, সিরাজগঞ্জ সদর থানার চক ব্রক্ষনগাঁতী গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে মিজানুর রহমান, খলিশাকুড়া গ্রামের মালেক মাওলানার ছেলে কাইউম মুন্নি, খলিশাকুড়া খিচুড়ি পাড়া গ্রামের মৃত শমসের আলীর ছেলে মোকলেসুর রহমান, আনোয়ার হোসেনের ছেলে রিয়াজ হাসান রাজু, চন্দ্রকোণা গ্রামের গোলাম কাদেরের ছেলে চাঁন মিয়া শেখ, আবুল কামলামের ছেলে শাহ আলম, চর ছনগাছা গ্রামের শহিদের ছেলে সুমন, সুলাইমান শেখের ছেলে হামিদ, ঘোড়াচড়া এলাকার আজিজুল সরকারের ছেলে মোমিন, আমলা পাড়া এলাকার আব্দুস সালামের ছেলে আবু সাইদ সুইট, নতুন ভাঙা বাড়ি দক্ষিণপাড়া এলাকার আমির হোসেনের ছেলে সবুজ, জারিলা পোড়াবাড়ি এলাকার সুজাবদ আলীর ছেলে আনিসুর রহমান, পূর্ব মোহনপুর এলাকার ইদ্রিস আলীর ছেলে আব্দুল আলিম ওরফে ডাকাত আলিম, আব্দুল করিমের ছেলে বাবু ওরফে ডাকাত বাবু, ধানবান্ধি জেসি রোড এলাকার নুরুল ইসলমের ছেলে মোতালেব ওপফে তালেব।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত হামিদ রায় ঘোষণার সময় উপস্থিত ছিলো। যাবজ্জীবনের পাশাপাশি ১৩ জনকে পাঁচ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাস সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

কারাদণ্ড প্রাপ্তরা হলেন, শিলন্দা এলাকার মোসলেমের ছেলে শফি, হোসেনপুর বউ বাজার এলাকার গুটু শেখের ছেলে হাকু, আমলা পাড়া এলাকার মজিবুর রহমানের ছেলে আলমগীর আলম ওপফে প্যাটেল আলম, দৌলতপুর খোকশাবাড়ি এলাকার মৃত রাকিব উদ্দিন শেখের ছেলে জুড়ান আলী, একডালা শহর এলাকার জয়েনউদ্দিন ভূইয়ার ছেলে লুৎফর ভূইয়া, পুরাতন শৈলাবাড়ি এলাকার মৃত আজাহার আলীর ছেলে বাবুল শেখ, হাট সারটিয়া এলাকায় আজাহার মোল্লার ছেলে সানোয়ার হোসেন, গাছাবাড়ি এলাকার মৃত মানিক চাঁদের ছেলে আলেক চাঁদ, বাঐতারা এলাকার হাসেম সরকারের ছেলে ইসমাইল হোসেন, খোকসাবাড়ি হাটখোলা এলাকার মৃত ইসমাইলের ছেলে মোস্তাকিম, নুরুল ইসলামের ছেলে আলমগীর হোসেন, ধানবান্দি জেসি রোড এলাকার জুলমত শেখের ছেলে জিয়া হাসান ওরফে জন ওরফে জনি, আবুল হোসেনের ছেলে মেহেদী হাসান পাপ্পু।

এদের মধ্যে রায় ঘোষণার সময় পাপ্পু, জনি ও ইসমাইল হোসেন উপস্থিত ছিলেন না।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত