মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

দুই লাখ টাকায় ভাড়াটে স্ত্রী ও পরিবার!



22নিউজ ডেস্ক ::
দুই লাখ টাকার বিনিময়ে শিলা ও রুমানাকে স্ত্রী হিসেবে ভাড়া করা হয়। পরে তাদেরকে স্ত্রী পরিচয় দিয়ে ধামরাইয়ে ওই বাসা ভাড়া নেন ডাকাত দলের সদস্যরা। ডাকাতির পর তাদেরকে দুই লাখ টাকা দেওয়ার কথা ছিল। এছাড়াও রাতে উচ্চ স্বরে গান চালু করে ব্যাংকের ওপরের ছাদের অংশ কাটার কাজ করতেন। পুলিশের কাছে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ডাকাত দলের সদস্যরা এসব কথা স্বীকার করেছেন বলে জানিয়েছেন ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রেজাউল হক টিপু।

এদিকে, ব্যাংক ডাকাতির ঘটনায় শুক্রবার গভীর রাতে র‌্যাব ধামরাই থানায় পৃথক চারটি মামলা করেছে। র‌্যাব-৪ এর ওয়ারেন্ট অফিসার বকতিয়ার বাদী হয়ে আটক পাঁচ ডাকাতের নাম উল্লেখ করে অস্ত্র, মাদক, ডাকাতি চেষ্টা ও অপমৃত্যু আইনে পৃথক এ চারটি মামলা করেন। তবে এ ঘটনার পরই ওই ভবনের মালিক হাজী রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে রেজাউল করিম আটক হলেও তার বিরুদ্ধে এখনও কোনও মামলা করা হয়নি।

আসামিরা হলেন, লক্ষ্মীপুরের মহাদেবপুর এলাকার সবুজ (৬২), চাঁদপুরের হাইমচর থানার বাদশা মিয়া (৩৫), মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর থানার রিয়াজুল ইসলাম (৩৩), ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার শিলা (২৮) ও কেরানীগঞ্জ থানার কদমতলীর রুমানা (২৫)।

প্রসঙ্গত, এই ঘটনার তিন মাস আগে ধামরাই বাজার এলাকার রিয়াজ প্লাজার তৃতীয় তলায় নিজেদেরকে পোশাক কারখানার কর্মী পরিচয় দিয়ে বাসা ভাড়া নেয় ডাকাত দলটি। এরপর বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) গভীর রাতে তাদের ভাড়া বাসার দ্বিতীয় তলায় থাকা সোনালী ব্যাংকের ধামরাই শাখায় ছাদ কেটে ব্যাংকের ভেতরে প্রবেশের পরিকল্পনা করেন।

পরে র‌্যাব গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই বাসায় অভিযান চালালে ডাকাত দলের সদস্য মাসুক র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছুড়লে মাসক নিহত হন। এরপর মাসুকের পরিবারের সদস্য পরিচয় দেওয়া বাকি পাঁচ ডাকাত ও ভবন মালিকের ছেলেকে আটক করে র‌্যাব।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত