শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

খালেদার আবেদন নামঞ্জুর



27নিউজ ডেস্ক :: জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বাদির সাক্ষ্য পুনরায় গ্রহণ চেয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন আদালত।

রোববার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকার বকশীবাজারের আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত বিচারক আবু আহমেদ জমাদারের নেতৃত্বে অস্থায়ী তৃতীয় বিশেষ জজ আদালত-৩ এ পৌঁছে এ আবেদন করেন।

আবেদনের শুনানি শেষে তা খারিজ করে দেন আদালত। এরপর তদন্তকারী কর্মকর্তা ও দুদকের উপ-পরিচালক হারুন-অর রশিদের পুনরায় সাক্ষ্য নেয়ার আবেদন করেন তিনি। এ আবেদনের শুনানি চলছে। এ মামলায় বাদি এবং তদন্তকারী কর্মকর্তা একই ব্যক্তি।

গত ৭ এপ্রিল মামলার দুই আসামি বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না ও ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান আত্মপক্ষ সমর্থনে নিজেদের নির্দোষ দাবি করে ন্যায়বিচারের প্রত্যাশা করেন। সেদিন বেগম খালেদা জিয়া অসুস্থতাজনিত কারণে আদালতে হাজির না হওয়ায় সময়ের আবেদন করেন তার আইনজীবীরা।

আদালত সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে ১৭ এপ্রিল আত্মপক্ষের সমর্থন ও যুক্তি উপস্থাপনের জন্য বেগম খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির হওয়ার জন্য নির্দেশ দেন। মামলায় বিভিন্ন সময়ে ৩২ জন্য সাক্ষ্য দেন।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে ২০১০ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

ওই মামলার অপর আসামিরা হলেন- খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছের তখনকার সহকারী একান্ত সচিব ও বিআইডব্লিউটিএ’র নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত