বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাষ্ট্রে একই পরিবারের ৮ জনকে হত্যা



3আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের ওহিও অঙ্গরাজ্যের প্রত্যন্ত অঞ্চলে কে বা কারা গুলি করে আটজনকে হত্যা করেছে। নিহতদের সবাই একই পরিবারের সদস্য এবং এদের মধ্যে একজন কিশোরও রয়েছে। এ ঘটনায় গোটা এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে ওই রাজ্যের পাইক কাউন্টির ইউনিয়ন হিল এলাকার পৃথক চারটি বাড়িতে ওই হত্যাকাণ্ডগুলো সংগঠিত হয় বলে সিএনএন জানিয়েছে। শুক্রবার সকাল আটটার দিকে ওই ঘটনার খবর আসে শরিফের কার্যালয়। এরপরই ঘটনাস্থলে ছুটে যায় পুলিশ। পাইক কাউন্টির শরিফ চার্লর্স রেডার এ ঘটনাকে, ‘ভয়াবহ অপরাধ’ বলে উল্লেখ করেছেন। তিনি আরো বলেছেন,‘ঘাতকরা একটি নির্দিষ্ট পরিবারের সদস্যদের লক্ষ্য করে ওই হামলা চালিয়েছে। এ নিয়ে এই এলাকার অন্য কোনো পরিবারগুলোর ভয় পাওয়ার কিছু নেই বলেই আমার মনে হয়।’

পুলিশ সাতজনের মৃতদেহ তিনটি বাড়ি উদ্ধার করে। এদের দুটো বাড়ি কাছাকাছি হলেও তৃতীয় বাড়িটির দূরত্ব আধ মাইলের মত। শুক্রবার বিকেলে ৮ মাইল দূরের চতুর্থ বাড়িটি থেকে অষ্টম মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়। পুলিশের ধারণা, এদের সবাইকে মাথায় গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। এদেরকে রাতেই খুন করা হয়েছিল। কয়েকজনকে হত্যা করা হয়েছিল ঘুমের মধ্যে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখতে পান, বিছানায় মরে আছেন গুলিবিদ্ধ এক মা। তার চার দিনের শিশুটি ঘুমিয়ে আছে তারই পাশে।

রহস্যজনক ওই বন্দুক হামলায় নিহতদের সাতজনই প্রাপ্তবয়স্ক। বাকি একজনের বয়স ১৬। পাইক কাউন্টির ইউনিয়ন হিল এলাকার পৃথক চারটি বাড়ি থেকে তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করা হলেও তারা সবাই ‘রোহডেন’ পরিবারের সদস্য। পরিবারের মাত্র তিনটি শিশু ওই ভয়াবহ হামলা থেকে বেঁচে গেছে। তাদের বয়স তিনের নিচে।

এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। গোটা পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে এফবিআই।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত