মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বানভাসি অনেকের খাবার আসছে আত্মীয় বাড়ি থেকে



shimul-bg20160802144450নিউজ ডেস্ক :: হাতে স্টিলের বড় একটি গামলা কাপড়ে বেঁধে পানি পার হয়ে বাড়ি যাচ্ছিলেন জমির উদ্দিন। কুড়িগ্রামের হাতিয়া ইউনিয়নের অনন্তপুর বাঁধের কোল ঘেঁষে তার বাড়ি।

স্টিলেরই থালা দিয়ে ঢাকা গামলায় কী আছে জানতে চাইলে ষাটোর্ধ্ব ওই ব্যক্তি জানান, কুড়িগ্রামের হাতিয়া ইউনিয়নে তার ছেলের শ্বশুরবাড়ি। আত্মীয় বাড়িতে পানি ওঠেনি। তাই সেই বাড়ি থেকে তাদের জন্য ডাল আর ভাত রান্না করে পাঠিয়েছে।

বন্যায় জমির উদ্দিনের ঘরে কোমর পানি উঠেছিল। সাত থেকে আটদিন আগে ওঠা পানি সোমবার (৩১ আগস্ট) রাত থেকে কমতে শুরু করেছে। এখন তার বাড়ি ও বাড়ির বাইরে গোড়ালি ও হাঁটুর মাঝামাঝি পানি। বাড়ির কাঁথা-কাপড়, চৌকি সবই ভেজা। রান্না করা কষ্টকর। তার বেয়াই বাড়ি থেকে রান্না করে শ্যালো ইঞ্জিন চালিত নৌকায় করে খাবার দিয়ে গেছে। এক আত্মীয়ের এমন বিপদে আরেক আত্মীয় এগিয়ে এসেছেন, জানান দিনমজুর জমির উদ্দিন।

বাঁধের কাছে নোঙর করা এক নৌকায় বেশ কয়েকজন নারী-পুরুষকে দেখা গেলো। তাদেরই একজন বিউটি। এই এলাকায় তার স্বামীর বাড়ি। নৌকায় করে কোথায় যাচ্ছেন জানতে চাইলে তিনি জানান, স্বামীর বাড়িতে পানি উঠলেও বাবার বাড়িতে এখনও পানি ওঠেনি। তাই বাচ্চা নিয়ে বাবার বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন। এখানে এসেছিলেন বাড়ির বর্তমান অবস্থা দেখতে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত