শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

‘নাও পাইছি, এহন প্রতিদিন স্কুলে যাইতে পারমু’



IMG_bg20160813195742নিউজ ডেস্ক :: ‘দুই মাস ধইরা স্কুলে যাইতে পারি না, নাও পাইছি, এহন (এখন) প্রতিদিন স্কুলে যাইতে পারমু’- হাসিমাখা মুখে এমন কথাই বলছিলো দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র আরিফ মিয়া। আরিফ কিশোরগঞ্জ জেলার তাড়াইল উপজেলার ধলা ইউনিয়নের সেকান্দরনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র। বন্যার কারণে এলাকার অনেকে স্কুলে যেতে পারছিলো না। বিষয়টি কর্তৃপক্ষ আমলে নিয়ে স্কুলগামী শিক্ষার্থীদের জন্য একটি নৌকা উপহার দিয়েছে। সেই নৌকা পেয়ে খুশি শিক্ষার্থীরা, অভিভাবকদের মধ্যে এসেছে স্বস্তি।
সরেজমিনে গিয়ে বিদ্যালয়টিতে প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত প্রায় ৩১৫ জন শিক্ষার্থীর উপস্থিত থাকার কথা জনা যায়।
এ বিদ্যালয়ের চার কিলোমিটার দূরে পানি বেষ্টিত গুচ্ছগ্রাম। বর্ষাকালে এ গ্রামের বাসিন্দারা উপজেলা কিংবা ইউনিয়নের সঙ্গে যোগাযোগ করতে দুর্ভোগে পড়তে হয়। এমন কি গ্রামের ২০-২৫ জন স্কুলগামী শিক্ষার্থীদের স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয়ে যায়।
তাড়াইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সুলতানা আক্তার জানান, ওই গ্রামের চারদিকে পানি থাকায় স্কুল পড়–য়াদের অনেক দুর্ভোগ পোহাতে হয়। এজন্য ওই গ্রামের স্কুল পড়–য়া ছাত্র-ছাত্রীদের যাতায়াতের সুবিধার্থে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি শিক্ষাতরী (নৌকা) ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত