শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ওবায়দুলকে ঢাকায় আনা হচ্ছে



full_1141115912_1472633471নিউজ ডেস্ক: নীলফামারীর ডোমার উপজেলার সোনারায় বাজার থেকে আজ সকালে গ্রেপ্তার হয় ওবায়দুল। পরে তাকে নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয় ডিএমপি পুলিশের একটি দল।

রাজধানীর কাকরাইলের উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের ছাত্রী সুরাইয়া আক্তার রিশা হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার বখাটে ওবায়দুল খানকে নীলফামারী থেকে ঢাকায় আনা হচ্ছে।

পুলিশের এই দলের নেতৃত্বে আছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) রমনা জোনের অতিরিক্ত কমিশনার (এডিসি) এইচ এম আজিমুল হক।

এক ব্রিফিংয়ে জেলা পুলিশ সুপার মো. জাকির হোসেন খান বলেন, ডিএমপি, স্থানীয় পুলিশ ও র‍্যাব যৌথ অভিযান চালিয়ে আজ সকালে ওবায়দুলকে গ্রেপ্তার করে।

ডিএমপির রমনা বিভাগের উপকমিশনার মারুফ হোসেন সরদার বলেন, রিশাকে ছুরিকাঘাত করার পর ওবায়দুল দিনাজপুরে পালিয়ে যান। সেখানে পুলিশ হানা দেয়ার আগেই তিনি সটকে পড়েন। এরপর যান ঠাকুরগাঁও। সেখান থেকে নীলফামারীতে যান।

গত বুধবার পরীক্ষা শেষে স্কুলের সামনে এক বখাটে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী রিশাকে ছুরিকাঘাত করে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত রোববার সে মারা যায়। এ ঘটনায় তার মা তানিয়া হোসেন রমনা থানায় এলিফ্যান্ট রোডের ইস্টার্ন মল্লিকা শপিং কমপ্লেক্সের একটি দর্জির দোকানের কর্মী ওবায়দুলকে আসামি করে মামলা করেন।

ওবায়দুলের গ্রামের বাড়ি দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের মিরাটঙ্গী গ্রামে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত