বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সৌন্দর্যের সংজ্ঞা বদলে দিয়েছেন এই ৬ মহিলা



full_1311238051_1472918955নিউজ ডেস্ক: দু’হাতের পাতায় জড়িয়ে নেওয়া যাবে কোমর, চিকন চুল, টানা চোখ, গমের মতো গায়ের রং, ভুবনমোহিনী হাসিতে ঝর তুলবে বহ পুরুষরে হৃদয়ে। নারীসৌন্দর্যের ব্যাখ্যা কি এর বাইরে কিছু হতে পারে? এই সংজ্ঞাই ভেঙে দেখালেন এই ছয় মহিলা। কেউ টাক, কারও গাল ঢেকেছে দাড়িতে, তো কারও চেহারা কঙ্কালসার। তাঁরা দাঁড়িয়েছেন ক্যামেরার সামনে। এঁরা শধু তথাকথিত মডেল নন। এঁরা মডেল সাহসের, আত্মবিশ্বাসের, নিজস্বতার।

– শ্যানটেল ব্রাউন ইয়ং: শরীরে শ্বেতী ভরে গেলেও মনে তার ছাপ পড়তে দেননি শ্যানটেল।
আমেরিকা’জ নেক্সট টপ মডেলে প্রথম সাহসের সঙ্গে পোজ দেন শ্যানটেল। আদ্রিয়ানা লিমার পাশাপাশি তিনি এখন ডেসিগুয়ালের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর।
– হরনম কৌর: পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোমে আক্রান্ত হরনমের মুখে ১১ বছর বয়স থেকে দেখা দিতে থাকে দাড়ির রেখা। স্কুলে হাসির পাত্রী হওয়ায় হরনম আত্মহত্যা করারও চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু এক সময় আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই
দাড়ি রাখতে শুরু করেন হরনম। আর আজ তিনি বডি কনফিডেন্স অ্যাকটিভিস্ট।

– মেডেলিন স্টুয়ার্ড: ব্রিসবেনের এই অষ্টাদশী ডাউন সিনড্রোমে আক্রান্ত। কিন্তু নিজের মডেল হওয়ার স্বপ্নের পথে তা কখনই বাধা হতে দেননি।
সৌন্দর্যের নতুন সংজ্ঞা তৈরি করেছেন তিনি।

– লিজি ভেলাসকুয়েজ: বিরল এক কনজেনিটাল রোগে আক্রান্ত লিজির শরীরে নেই কোনও ফ্যাট টিস্যু। ১৭ বছর বয়সে ইউটিউবে বিশ্বের কুত্সিততম
মহিলা তকমা দেওয়া হয় তাঁকে। কিন্তু তাতে দমে যাননি লিজি। আজ তিনি লেখিকা, মোটিভেশনাল স্পিকার এবং অ্যান্টি-বুলিং অ্যাক্টিভিস্ট।

– মেলানি গেদোস: এক্টোডারমাল ডিসপ্লেশিয়া নিয়ে জন্মেছেন মেলানি। জিনগত এই রোগে দাঁত, তরুণাস্থি, নখ তৈরি হয় না শরীরে। ফলে মেলানির মাথায় টাক, দাঁতও নেই। তবুও সগর্বে ফোটোশুট করেন তিনি। আর সেই ফোটোশুটেই চমকে দিতে পারেন তিনি। কারণ মেলানি বিশ্বাস করেন, এই পৃথিবীতে তাঁর মতো দ্বিতীয় কেউ নেই।

– কারমেন ডেল’রফিস: সৌন্দর্যকে যেথানে মনে করা হয় যৌবনের সমার্থক সেখানে কারমেন ডেল’রফিস সত্যিই ঈর্ষণীয় এক নাম। ৮৫ বছর বয়সেও তিনি র‌্যাম্পে এলে স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়ান সদ্যযুবতীরা। ১৯৪৭ সালে ভোগ ম্যাগাজিনের কভার গার্ল কারমেন গত ৭০ বছর ধরে প্রায় সব কিংবদন্তি ফোটোগ্রাফারের সঙ্গে কাজ করেছেন। ছবি দেখে বোঝা যাচ্ছে বয়স ৮৫?

সূত্র- আনন্দবাজার

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত