শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

শ্রীমঙ্গলে একটি মন্ডপে আগাম দুর্গাপূজা শুরু



157585_136সারাদেশের সকল পূূজা মন্ডপে কারিগররা যেখানে ব্যস্ত মূর্তি তৈরীর কাজে সেখানে দেশের একটি মন্ডপে শুরু হয়ে গেছে আগাম দূর্গা পূজা। মান্ডপের চারপাশ মুহিত হচ্ছে ঢাকের বাদ্যে।
শ্রীমঙ্গল ইছামতি চা বাগানে মঙ্গলচন্ডীরথলীতে পৌরানিক নিয়ম অনুযায়ী দেবী দূর্গার নয়টি রূপে দশ দিন ব্যাপী পূর্জাচ্চর্নার প্রথম দিন
১ অক্টোবর শনিবার দুপুরে দূর্গাদেবীর শৈলপুত্রী রূপে পূজা করা হয়। পূজা কমিটির সভাপতি পরিমল ভৌমিক জানান, এভাবে নবমী তিথি পর্যন্ত ১০ সেপ্টেম্বার দেবীর ব্রম্ম্রচারিণী, চন্দ্রঘন্টা, কুষ্মান্ডা, স্কন্ধ মাতা, কাত্যায়নী, কালো রাত্রী, মহা গৌরী ও সিদ্ধিদাত্রী রূপে পূজা করা হবে। এ পূর্জাচ্চনা বয়ে আনবে জগৎ শান্তি জানালেন পূজার পুরহিত শিক্ষক দিপংকর ভট্টাচার্য। অসুরদের দমন করে মা দূর্গা যেভাবে স্বর্গ রাজ্য জয় করেছিলেন ঠিক সেভাবে পৃথিবীর বর্তমান অশান্তি দূর করবেন এমনটাই আশা নিয়েই এবছর এ পূজার আয়োজন করেছেন বলে জানালেন পূজা কমিটির সহ সভাপতি সুরঞ্জিত দাশ।
আর এ পূজা দেখতে শনিবার সকাল থেকেই মান্ডপে ভীড় হচ্ছে প্রচুর দর্শনার্থীর ।
পূজার আয়োজকরা জানান, এই দেবস্থলিটি শ্রীমঙ্গলের সর্বাধীক প্রাচীন স্থাপনা হিসেবে পরিচিত। তারা জানান, প্রায় ৫শত বছর ধরে এখানে রয়েছে মঙ্গলচন্ডীদেবীর (দূর্গা) থলি। অনেকে শ্রীমঙ্গল নামের উৎপত্তিও এই শ্রী শ্রী মঙ্গল চন্ডীর থলি থেকে হয়েছে বলে মত প্রকাশ করেন।
পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ঝিনুক বৈদ্য জানান, এই ঐতিহাসিক স্থানটিকে ধরে রাখতে কয়েক বছর ধরে তারা এখানে দেবীর নব রুপে পূজা করে আসছেন। তবে এর স্থায়ী রুপ দিতে প্রয়োজন সরকারসহ দানশীলদের সহায়তা।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত