বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর ফোন কল পেয়ে অবাক রাসেল



shariar-alam-rasel20161015204846পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের ফোন কল পেয়ে রীতিমতো অবাক হয়ে গেছেন লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার হতদরিদ্র পরিবার থেকে মেডিকেলে চান্স পাওয়া রায়হানুল বারী রাসেল।

ফোনে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী রায়হানুল বারী রাসেল ও তার বাবা সাফিউল ইসলামের সঙ্গে প্রায় ৫ মিনিট কথা বলেন এবং পরীক্ষার ফলাফল, ভর্তি সংক্রান্ত বিষয় ও রাসেলের পরিবারের খোঁজখবর নেন। এ নিয়ে রাসেলদের পরিবারে বর্তমানে আনন্দের বন্যা বইছে।
রাসেল বলেন, আমি কোনো দিন ভাবতেই পারিনি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী স্যার আমাকে ফোন করবেন। স্যারের ফোন পেয়ে আমি খুবই গর্বিত। আমার পড়াশুনার বিষয়ে তিনি আশ্বস্ত করেছেন। স্যার ঢাকায় গিয়ে আমাকে যোগাযোগ করতে বলেছেন।
রাসেলের বাবা সাফিউল ইসলাম জানান, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী স্যার আমাদের মতো হতদরিদ্র পরিবারে খোঁজখবর নেওয়ায় আমরা খুব আনন্দিত।
গত ১১ অক্টোবর একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে ‘দাদনের টাকায় পরীক্ষায় অংশ নিয়ে মেডিকেলে চান্স পেল রাসেল’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হলে সেটি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের সুনজরে আসে।
এরপর তিনি রাসেলের সঙ্গে যোগাযোগের নম্বর চেয়ে গতকাল শুক্রবার রাতে তার ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দেন। এর ৩৭ মিনিট পর তিনি নম্বর পাওয়া গেছে জানিয়ে আপডেটে আবারো একটি স্ট্যাটাস দেন।
এদিকে অদম্য মেধাবী রাসেল মেডিকেলে চান্স পাওয়ায় তার পড়াশুনার জন্য তাকে অনেকেই সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন।
প্রসঙ্গত, অভাব-অনটনের মাঝেও পড়াশুনা চালিয়ে একের পর এক সফলতা অর্জন করেছেন মেধাবী ছাত্র রায়হানুল বারী রাসেল।
এবার তিনি মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন। তার এই সফলতায় রীতিমতো অবাক হয়ে গেছে এলাকার মানুষ। রাসেল রংপুর মেডিকেল কলেজে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে সারাদেশের মেধা তালিকায় ৫১৪তম স্থান দখল করেছেন। সে অনুযায়ী রাসেলের ঢাকার সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ জুটবে।
সে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার পূর্ব সারডুবি গ্রামের দিনমজুর সাফিউল ইসলামের ছেলে রাসেল।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত