মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

আরেকটি নাসিরনগর ট্রাজেটি থেকে রক্ষা পেল কুলাউড়া



unnamed-6-11কুলাউড়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে এক হিন্দু ব্যাক্তি ইসলাম ধর্ম নিয়ে কুটুক্তি করলে এলকায় ব্যাপক উত্তেজনা শুরু হয়। পরে পুলিশি হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। তবে নাসিরনগরের মতো যাতে আরেকটি অনাকঙ্খিত ঘটনা না গঠে সেজন্য রবিরবাজার বাজারসহ ওই এলাকার হিন্দু বাড়ীগুলোতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এঘটনায় কুটুক্তিকারী ওই ব্যাক্তিসহ ৪ জনকে জিঙ্গাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।
সরেজমিনে জানা যায়, উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের সদপাশা গ্রামের অপু দেব নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে ৭ নভেম্বর সোমবার সন্ধ্যায় ফটোশপে এডিট করা পবিত্র কোরআন শরিফের ওপর কৃষ্ণের ছবি বাসানো একটি ছবি পোষ্ট করা হয়। ছবির ক্যাপশনে লেখা “কোন মুসলিম থাকলে কোন কিছু করিও, আমার নাম অপু, আমার বাড়ি সদপাশা”।
ফেসবুকে ছবিটি দেখার পর স্থানীয়দের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ওইদিন রাত ৮টা থেকে স্থানীয়রা রবিরবাজারে জমায়েত হয়ে প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ মিছিলের প্রস্তুতি নেয়। খবর পেয়ে মৌলভীবাজার পুলিশ সুপার মোঃ শাহজালাল, কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাহসিনা বেগম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আলমগীর হোসেন, কুলাউড়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার জুনাইদ আলম সরকার, কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুদ্দোহা পিপিএম, পৃথিমপাশা ইউপি চেয়ারম্যান নবাব আলী বাকর খান, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফসহ পুলিশ বিষয়টি খাতিয়ে দেখার এবং অভিযুক্তের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। তবে এরিপোর্ট লেখা অনাকঙ্খিত এড়াতে রবিরবাজার বাজারসহ ওই এলাকার হিন্দু বাড়ীগুলোতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
এদিকে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে ফেইসুকে কুটুক্তিকারি অপু দেবসহ ৩ জনকে জিঙ্গাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।
কুলাউড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক বিনয় ভূষন রায় জানান, পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত রয়েছে। আমরা ৩ জনকে জিঙ্গাসাবাদের জন্য আটক করেছি। ফেসবুক আইডিটি ফেইক না আসল তা খাতিয়ে দেখা হচ্ছে। এছাড়াও বিষয়টি যেহেতু স্পর্শকাতর তাই নাসিরনগরের মতো যে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে অতিরিক্ত মোতায়েন করা হয়েছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত