শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

জুড়ীতে টিলাকাটার অভিযোগকারীকে স্বপরিবারে খুন করার হুমকি



unnamed-3-5নিউজ ডেস্ক:: মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলায় টিলাকাটার অভিযোগকারীকে স্বপরিবারে খুন করার হুমকি দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এমনকি সন্ত্রাসীরা দলবদ্ধ হয়ে অভিযোগকারী নিলু মিয়া (২২) এর বসত বাড়ী ঘেরাও করলে পরে পুলিশ আসায় সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক ৯ টায়। এ নিয়ে ২ ডিসেম্বর শুক্রবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলন করেছে অভিযোগকারী।
সংবাদ সম্মেলনের অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ১৫-১১-১৬ইং তারিখে মোঃ নিলু মিয়া (২২) উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে উত্তর ভবানীপুর মোকামটিলা গ্রামে বেআইনীভাবে পরিবেশ সংরক্ষন আইনের ৬ (খ) ধারা লঙ্ঘন করে উত্তর ভবানীপুর গ্রামের মৃত আনছর আলী পুত্র মোঃ শাহ আলম(৩০) এর বিরুদ্ধে টিলা কাটার অপরাধে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এর আগে ১৯ অক্টোবর টিলার মাটি কাটার ছবিসহ বিভিন্ন দৈনিক পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হলে শাহ আলম ক্ষিপ্ত হয়ে নিলু মিয়া ও তার পরিবারের সকল সদস্য কে নানা ধরনের ভয়-ভীতি ও খুন জখমের হুমকী প্রদান করলে ২২ নভেম্বর জুড়ী থানার জিডি নং ৮০৩/১৬ দায়ের করে। হুমকি প্রদানকারী শাহ আলম পূর্ব ঘোষনানুযায়ী গত ১ ডিসেম্বর রাত আনুমানিক ৯ টার দিকে তার ভাই কাসেম মিয়া, শাহিন মিয়া, শফিক মিয়া, আলম মিয়া, আহমদ মিয়া, আব্দুল গফুরের পুত্র শাহিদ মিয়া, লাল মিয়ার পুত্র জীবন মিয়া, জয়নাল মিয়ার পুত্র রুয়েল মিয়াসহ আরও ১০/১২ জন দেশীয় অস্ত্র ও লাটিশুটা নিয়ে তার বসত ঘর ঘেরাও করে অকথ্য ভাষায় তারা গালী গালাজ করতে থাকে। এসময় পরিবারের কয়েক জন সদস্য প্রাণের ভয়ে নিরব থাকে। এক পর্যায়ে তার মাকে ধমক দিয়ে বলে তোর মেয়ের জামাই আল আমিনকে বের করে দে তাকে আমরা প্রাণে না মেরে বাড়ীতে যাবনা। সন্ত্রাসীরা আল আমিনকে যেখানে পাবে সেখানেই খুন করে ফেলবে বলে জানায়। পরে পুলিশ আসলে সন্ত্রাসীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।
উল্লেখ্য আল আমিন আহমদ জুড়ী নিউজ ডটকম ডটবিডি’র নির্বাহী সম্পাদক এবং তিনি, মাটিকাটার অভিযোগের বিষয়টিতে সোচ্ছার থাকায় সন্ত্রাসীরা ক্ষিপ্ত হয়ে আল আমিনকে খুঁজাখুঁজি করছিলো। সংবাদ সম্মেলনে আরও অভিযোগ করা হয়, ইউএনও বরাবরে লিখিত অভিযোগ দেয়ার পর ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করার হয়। কমিটি সত্যতা পেলেও কোন রূপ ব্যবস্থা গ্রহন না করায় সন্ত্রাসীরা অভিযোগকারীদের উপর বেপোরয়া হয়ে উঠেছে। নিলু মিয়া থানায় জিডি করায় শাহ আলম ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর এহেন জঘন্য কার্যকলাপে নিরাপত্তার স্থলে নিরাপত্তাহীনতা আরও বাড়ছে বলে জানায়। এ ব্যাপারে নিলু মিয়া উর্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত