সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে জেলা পরিষদ নির্বাচনের সদস্য প্রার্থীদের নির্ঘুম প্রচারণা



1469695937-2নিউজ ডেস্ক:২৮ ডিসেম্বর অনুষ্টিতব্য জেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে কমলগঞ্জ উপজেলা থেকে ১৪ ও ১৫ নং বল্কের সদস্য প্রার্থীরা কোমর বেঁধে প্রচারনায় মাঠে নেমে পড়েছেন। প্রথমবারের মতো নতুন পদ্ধতিতে হতে যাওয়া জেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এই ভোট নিয়ে সাধারন নাগরিকদের মধ্যে তেমন কোন তোড়জোড় না থাকলে ও জনপ্রতিনিধিদের মাঝে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। প্রার্থীরা নির্ঘুম প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। প্রার্থীরা নিজের প্রতীকের পক্ষে ভোট আনার জন্য জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে নিজের প্রার্থীতার পক্ষে যোগ্যতা সহ নানা যুক্তি-তর্ক উপস্থাপন করছেন।
নির্বাচনী লড়াইয়ে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে প্রার্থীরা বিভিন্ন কৌশল ও গ্রহণ করছেন। এদিকে অভিযোগ উঠেছে ,কয়েকজন সদস্য প্রার্থী নিজের বিজয় নিশ্চিত করতে গিয়ে টাকার খেলা শুরু করেছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন কাউন্সিলর ও ইউপি সদস্য বলেন, জেলা পরিষদ নির্বাচনের মতো নির্বাচনে যদি সাধারণ নির্বাচনের মতো টাকার খেলা চলে তবে ভবিষতে আমাদেরকে এর খেসারত দিতে হবে এবং লজ্জ্বা-শরম বলতে আর কিছুই থাকবে না।
মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ নির্বাচনে কমলগঞ্জ উপজেলার ৪টি ইউনিয়ন ১টি পৌরসভা (কমলগঞ্জ পৌরসভা, কমলগঞ্জসদর, ইসলামপুর, মাধবপুর, আদমপুর ইউনিয়ন) নিয়ে গঠিত ১৪ নং বল্ক। মোট ভোটার সংখ্যা ৬৫ জন। জানা গেছে, জেলা পরিষদের ১৪ নং ওয়ার্ড থেকে সদস্য পদে আওয়ামীলীগ থেকে প্রার্থী হয়েছেন আব্দুল গফুর চৌধুরী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ও কমলগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগ সদস্য ও সেচ্ছা সেবক লীগের সদস্য হেলাল উদ্দিন (তালা প্রতিক) , বিএনপি থেকে জেলা ছাত্রদলের যুগ্ন আহবায়ক গোলাম রব্বানী তৈমুর (সিএনজি প্রতীক) এবং কমলা কান্ত সিংহ (নলকূপ প্রতীক) নিয়ে প্রতিদন্ধিতা করছেন।
সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে প্রার্থী হয়েছেন আদমপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সাব্বির আহমদ এর সহধর্মীনি তপাদার রেজয়ানা ইয়াসমিন (বই), কমলগঞ্জ মহিলা আওয়ামীলীগের নেত্রী মুন্না রায় (দোয়াতকলম), উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা আছলম ইকবাল মিলনের কন্যা রোকসানা আক্তার সুন্নী ( ফুটবল) ও মমতা বেগম (মাইক) প্রতিক নিয়ে প্রতিদন্ধিতা করছেন। অপর দিকে ৫টি ইউনিয়ন (শমসেরনগর, পতনঊষার, রহিমপুর, মুন্সিবাজার, আলীনগর ইউনিয়ন ) নিয়ে গঠিত ১৫ নং বল্ক। মোট ভোটার সংখ্যা ৬৮ জন।
এখানে সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে আওয়ামীলীগ থেকে অধ্যক্ষ বাবুল মোর্শেদ ( তালা ),আওয়ামীলীগ থেকে মহরম আলী বাছিত (নলকূপ),আওয়ামীলীগ থেকে মুহিবুর রহমান জয়নাল ( সিএনজি)। মহিলা সদস্য পদে আওয়ামীলীগ থেকে মেরী রাল্ফ(হরিন),আওয়ামীলীগ থেকে শেলী রানী পাল (টেবিল ঘড়ি) প্রতিক নিয়ে প্রতিদন্ধিতা করছেন।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত