শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

জামালগঞ্জে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধার বিরোদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিককে প্রাণ নাশের হুমকী, থানায় অভিযোগ



অনিমেষ দাস,জামালগঞ্জ(সুনামগঞ্জ) :::সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার তেলিয়া গ্রামের মৃত ইল্লাছ আলী (প্রকাশ চৌধুরী)র বড় ছেলে আব্দুল কুদ্দুছ ভ’য়া মুক্তিযোদ্ধা, সম্মানীভাতা উত্তোলনসহ সরকারী বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা ভোগ করায় গত ১৬/০১/২০১৭ইং তারিখে তেলিয়া গ্রামবাসীর মধ্যে প্রবীণ মুরুব্বি ২২জন স্বাক্ষরীত, জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে, একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে অভিযোক্ত মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কুদ্দুছের নিকট ২১জানুয়ারী অনুমান ১০টায় গনমাধ্যম কর্মী অনিমেষ দাস বক্তব্য আনতে গেলে তিনি নানান কথা বলে বক্তব্য প্রদান করেন, যাওয়ার সময় বলে যান আমার ছেলেরা আসবে। পরেরদিন অনুমান ১২টার দিকে উনার ছেলে আব্দুর নুর (২৮) ও জুবায়ের আহমেদ মোবাইল নাম্বার ০১৭১১-৩৫৯০৪ থেকে কল করে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সামনে সাক্ষাত করার কথা বললে আমি স্বাক্ষাৎ করি। উনার ২ ছেলে আমার সাথে কথা বলার জন্য সংসদের পিছনে নিরিবিলি স্থান নদীর পাড়ে নিয়ে যায়,সেখানে নিয়ে আমাকে বিভিন্ন কথা বলে,আমি বলি আমি পত্রিকায় খবর দেওয়ার জন্য তোমার বাবার সাথে কথা বলি,বলার সাথে সাথেই ২ভাই ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে অশালীন ভাষায় গালি গালাজ করে,রাগাম্বিত হয়ে বলে এখন যদি তোরে নদীতে পেট কেটে ভাসিয়ে দেই তাহলে তরে দেখার কেউ থাকবেনা। যদি খবর পত্রিকায় প্রকাশ করিস তাহলে সময় সুযোগে পাইলে মালাউনের বাচ্ছা তোরে খুন করবো এই বলে যাওয়ার সময় জুবায়ের আহমেদ বলে আমি পুলিশে কর্মরত,আমারার হাত কত লম্বা তা তোর জানা নাই । কত সাংবাদিক মাইরা ফালাইয়া থুইছে, কুত্তা বিলাই খাইতাছে দেখার কোন লোক নাই চুপচাপ থাকিস লরিসনা। আমার কথা শুন এই খবর তুই দিসনা কথা একটাই। এই ব্যাপারে তাদের পিতা আব্দুল কুদ্দুছের নিকট বিচার প্রার্থী হয়ে কোন উত্তর না পেয়ে ২৪ জানুয়ারী রাত অনুমান ৮ ঘটিকার সময় জামালগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করি। জামালগঞ্জ থানার এস আই রজব আলী বলেন তদন্ত স্বাপেক্ষে আইনগত ব্যাবস্থা নেব।জামালগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি আব্দুল আহাদ ও সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান বলেন,বস্তুনিষ্ট সংবাদ প্রকাশে দুষ্টলোকদের কষ্ট হয়। প্রেসক্লাব সদস্য অনিমেষ দাস এসবেরই স্বীকার,আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই।আইন প্রয়োগকারী সংস্থাদের দৃষ্টি আকর্ষন হুমকীদাতাদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা আহব্বান।প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক নেহার দেবনাথ বলেন সাংবাদিক অনিমেষকে যারা হুমকী দিয়েছে আমি তার তীব্র নিন্দা জানাই,দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানাই।প্রেসক্লাব সদস্য বাপ্পী বর্মন,আতিকুর রহমান তীব্র নিন্দা জানান।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত