বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

এক যুগেও সাবেক অর্থমন্ত্রী কিবরিয়া হত্যার বিচার শেষ হয়নি



হবিগঞ্জ সংবাদদাতা:: সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যার ১২ বছর পূর্ণ হচ্ছে আগামীকাল শুক্রবার।
একাধিকবার তদন্ত এবং নানা আইনী জটিলতায় এক যুগেও কিবরিয়া হত্যার বিচার শেষ হয়নি। মামলায় ১৭১ জনের মধ্যে মধ্যে মাত্র ৪৩ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ হয়েছে। বিচার বিলম্বিত হওয়ায় নিহতদের পরিবারে কিছু শংকা তৈরি হয়েছে।
২০০৫ সালের ২৭ জানুয়ারি সদর উপজেলার বৈদ্যের বাজারে ঈদ পূণর্মিলনী উপলক্ষে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভা শেষে ফেরার সময় দুর্বৃত্তদের গ্রেনেড হামলায় নিহত হন সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া ও তার ভাতিজা শাহ মঞ্জুর হুদাসহ ৫ জন। হামলায় আহত হন অন্তত ৪৩ জন।
এ ঘটনায় হত্যা এবং বিস্ফোরক আইনে দুটি মামলা দায়ের করা হয়। উভয় মামলায় একাধিকবার তদন্ত হয়। সর্বশেষ তদন্তে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, বিএনপি চেয়ারপার্সনের সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, সিলেটের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও হবিগঞ্জের মেয়র জি কে গউছসহ ৩২ জনকে আসামিভুক্ত করা হয়। এর মাঝে আরিফুল হক চৌধুরী ও জি কে গউছসহ ১০ জন উচ্চ আদালত থেকে জামিনে, ৮ জন পলাতক ও ১৪ জন কারাগারে আটক আছেন।
মামলা দুটির বাদী বর্তমান জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল মজিদ খান এমপি বলেন, তদন্তে দীর্ঘ সময় ব্যয় হয়েছে। মামলায় সাক্ষী অনেক।ইতিমধ্যে বিভিন্ন পর্যায়ের ৪৩ জনের সাক্ষ্য নেয়া হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষীদের কেউ কেউ এখনো বাকি রয়ে গেছেন। ফলে দেরি হওয়ার জন্য নিহতদের পরিবারে কিছু শংকা থাকতেই পারে।
এ ঘটনায় আহত জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির জানান, আইন নিজস্ব গতিতেই চলছে। তবে কখনও সাক্ষী হাজির হয়না। আবার কখনো আসামি হাজির না থাকায় সাক্ষ্য নিতে পারেন না বিচারক। এ পরিস্থিতির কারণে মূলত বিচার বিলম্বিত হচ্ছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত