বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ফাঁস হওয়া প্রশ্নেই সম্পন্ন হল এসএসসির গণিত পরীক্ষা



নিউজ ডেস্ক:: মেসেজিং অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে আগের রাতে ফাঁস হওয়া প্রশ্নেই নেওয়া হয়েছে এসএসসির ঢাকা বোর্ডের গণিতের পরীক্ষা। একটি ফেসবুক গ্রুপ থেকে মোবাইল নম্বর নিয়ে পরীক্ষার্থী সেজে প্রতিবেদক শনিবার রাতে গণিতের যে প্রশ্ন পেয়েছিলেন, হুবহু সেই প্রশ্নেই গণিতের সৃজনশীল ও এমসিকিউ অংশের পরীক্ষা হয়েছে।
এসএসসিতে রবিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত গণিত (আবশ্যিক) বিষয়ের পরীক্ষা হয়। দুপুরে পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে প্রশ্নপত্র দেখার পর মিলিয়ে ফাঁস হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।
গত কয়েক বছর ধরে পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস নিয়ে ব‌্যাপক আলোচনা চললেও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বরাবরই তা নাকচ করা হচ্ছিল। এবার প্রমাণ পাওয়ার কথা জানানো হলে তার বিস্তারিত শুনে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক উপ-কমিটির আহ্বায়ক ও ঢাকা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তপন কুমার একে ‘উদ্বেগের বিষয়’ বলে মন্তব‌্য করেন।
তিনি বলেন, শনিবার রাতে বোর্ড কর্তৃপক্ষও কথিত ফাঁস হওয়া একটি প্রশ্নপত্র পেয়েছিল। তবে তার সঙ্গে মূল প্রশ্নপত্র মেলেনি। তবে সকাল সাড়ে ৯টায় যে প্রশ্ন তারাও পেয়েছিলেন, তা মূল প্রশ্নপত্রের সঙ্গে মিলে গেছে বলে স্বীকার করেন তপন কুমার।
এ বিষয়ে কথা বলতে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের সঙ্গে রবিবার রাতে যোগাযোগ করা হলে তার মোবাইল নম্বরগুলো বন্ধ পাওয়া যায়। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইনের মোবাইলে কল করলে তিনি ফোন ধরেননি। এসএমএস পাঠালেও সাড়া দেননি তিনি।
পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক উপ-কমিটির আহ্বায়ক তপন কুমার বলেন, “আমাদের সহযোগিতা করলে অবশ্যই বিষয়টি খতিয়ে দেখব। গোয়েন্দা সংস্থাকে ওইসব তথ্য জানান।” কীভাবে প্রশ্ন ফাঁস হল—জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমাদের ধারণা ট্রেজারি থেকে প্রশ্ন বের করে কেউ ওই প্রশ্ন বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছিল।”
তপন কুমার জানান, বিজি প্রেসে ছাপা হওয়ার পর পরীক্ষা শুরুর ১৫ থেকে ২০ দিন আগে সিল করা প্রশ্ন পাঠানো হয় বিভিন্ন জেলার ডিসি অফিসে, রাখা হয় সেখানকার ট্রেজারিতে। ডিসি অফিসের ট্রেজারি থেকে পরীক্ষা শুরুর তিন দিন আগে প্রশ্ন যায় প্রতি উপজেলার থানায়। থানা থেকে পরীক্ষার দিন সকালে কেন্দ্রে কেন্দ্রে প্রশ্ন পাঠানো হয়। পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে সিল করা প্রশ্নের ফাইল খুলতে হয়।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত