সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সুনামগঞ্জে পাউবো’র অনিয়ম দুর্নীতি ও বোরো ফসলহানীর প্রতিবাদে হাওরবাসীর মানববন্ধন



ডেস্ক রিপোর্ট:: পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) অবহেলা ও দুর্নীতির কারণে বাঁধ ভেঙ্গে উঠতি বোরো ফসল তলিয়ে যাওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে ও দ্রুত ফসল রক্ষা বাঁধের কাজ সম্পন্ন করার দাবিতে সুনামগঞ্জে মানববন্ধন করেছে সচেতন হাওরবাসী। রোববার (২৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
‘রুখে দাঁড়াও হাওরবাসী’ এ শ্লোগান নিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচিতে আইনজীবী, শিক্ষক, সাংবাদিক, সংস্কৃতিকর্মী, জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ নেন।
সাংবাদিক বিন্দু তালুকদারের পরিচালনায় মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন লেখক কলামিস্ট এডভোকেট হোসেন তৌফিক চৌধুরী, জেলা সিপিবির সভাপতি অধ্যাপক চিত্তরঞ্জন তালুকদার, দৈনিক সুনামকণ্ঠের সম্পাদক বিজন সেন রায়, লেখক ডাঃ মোরশেদ আলম, সুনামগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র হোসেন আহমদ রাসেল, আমরা হাওরবাসীর প্রধান সমন্বয়ক রুহুল আমীন, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আজাদ হোসেন বাবলু, প্রভাষক মশিউর রহমান, জেলা জাসদ (আম্বিয়া)’র সাধারণ সম্পদক সালেহীন চৌধুরী শুভ, সাংবাদিক শামস শামীম, দেওয়ান গিয়াস চৌধুরী, জেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সভাপতি মেহেদী হাসান চৌধুরী রাসেল, সাধারণ সম্পাদক রিংকু চৌধুরী, খেলাঘর জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক রাজু আহমেদ, জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি তারেক চৌধুরী, সুনামগঞ্জ জাগরনী মুক্ত স্কাউটসের সহ সম্পাদক এ আহসান রাজীব, জেলা এ্যাকটিভ সিটিজেন্স ইয়ূথ লিডার্স এর সভাপতি শহীদ নূর আহমেদ প্রমুখ।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ‘পানি উন্নয়ন বোর্ডের অনিয়ম-দুর্নীতি ও অবহেলায় প্রতি বছর সুনামগঞ্জের হাওরের বোরো ফসল তলিয়ে যায়। ক্ষতিগ্রস্ত হয় লাখো কৃষক। প্রতি বছর ক্ষতির পরিমাণ বাড়লেও কৃষকরা কোন সহায়তা পান না। ২৮ ফেব্রুয়ারি মধ্যে সকল হাওর রক্ষা বাঁধের কাজ শেষ করার নিয়ম থাকলেও এখন পর্যন্ত অনেক হাওরে বাঁধের কাজ শুরুই হয়নি। পাউবোর অনিয়ম-দুর্নীতির কারণে বাঁধে মাটি না ফেলায় হাওরের পানি ঢুকে বোরো ধান তলিয়ে যাচ্ছে। বাঁধের অভাবে ইতোমধ্যে ধর্মপাশার চন্দ্রসোনারথাল, মধ্যনগরের সুরমার, তাহিরপুরের সমসার, সন্যাসী, এরালিয়া কোনা, গনিয়াকুরি হাওরে পানি ঢুকে তলিয়ে গেছে উঠতি বোরো ফসল।
উল্লেখ্য, গত বুধবার থেকে বাঁধের অভাবে ধর্মপাশার চন্দ্রসোনারথাল, মধ্যনগরের ঘুরমার, তাহিরপুরের সমসার, সন্যাসী, এরালিয়া কোনা, গনিয়াকুরি হাওরে পানি ঢুকে তলিয়ে গেছে প্রায় আড়াই হাজার একর বোরো জমি। আরো ৫টি হাওরের ফসল অরক্ষিত আছে।
বক্তারা পাউবোর অনিয়ম-দুর্নীতির খোঁজে বের করতে উচ্চ পর্যায়ে তদন্ত কমিটি গঠন ও অনিয়ম-দুর্নীতির সাথে জড়িত সকলের শাস্তির দাবি করে বলেন, ‘হাওরের বোরো ফসল রক্ষায় প্রয়োজনে কৃষকদের সাথে নিয়ে পাউবো, জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ঘেরাও করা হবে।’

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত