সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন ১১মার্চ না হলেও কমিটি ঘোষনা, উপজেলা ও কলেজের ইউনিটের সম্মেলনের খবর নেই



তাহিরপুর প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন ১১মার্চ নির্ধারন করা হলেও সম্মেলন হবে কি না এই জল্পনা-কল্পার শেষ হচ্ছে না। তবে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক জরুরী সভায় সম্মেলনের এই তারিখ ঘোষনার পর থেকে জেলা জুড়েই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মাঝে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। সম্মেলন সফল করার জন্য ব্যাপক প্রস্তুতি শুরু ও করছে জেলা ছাত্রলীগ। আর পদ-প্রত্যাশীরা সরব রয়েছে মাঠে আর কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে চালিয়ে যাচ্ছে জোড়লো লবিং।
তবে একাধিক সুত্রে জানাযায়, জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন ১১মার্চ করতে না পারলেও কমিটি ঘোষনা করা হবে। এদিকে দীর্ঘ দিন ধরে উপজেলাগুলোর সম্মেলন না হওয়ার বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত না নেওয়ায় ফলে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে নেতাকর্মীদের মাঝে। দলীয় সুত্রে জানা যায়, গত চলতি বছরের ১৮ই ফ্রেরুয়ারী শনিবার ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদে এক জরুরী সভায় ১১মার্চ সুনামগঞ্জের জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনের এই সিদ্ধান্ত হয় বলে সংগঠনের সভাপতি মোঃ সাইফুর রহমান ও সাধারন সম্পাদক এস এম জাকির হোসেনের স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। অন্যদিকে জেলার তাহিরপুর,ধর্মপাশা,দিরাই,শাল্লা সহ ৯টি উপজেলায় ও ২৬কলেজ ইউনিটের মধ্যে কোনটিতে ১০বছর,কোনটিতে ১৫বছর আর কোনটিতে ২০বছর ধরে সম্মেলন হচ্ছে না।
শুধু বার বার সম্মেলন হবে বলে তারিখ ঘোষনা করা হয় আর পরির্বতন করা হয়। ফলে ছাত্রলীগের কার্যক্রম একে বারেই অকেজো হয়ে রয়েছে। সম্মেলন না হওয়া বিভিন্ন্ উপজেলার প্রস্তাবিত সভাপতি তাহিরপুর উপজেলা ছাত্রলীগের আহসানুজ্জামান শোভন,ধর্মপাশা উপজেলার আবু শাহাদাত তিতাশ,জামালগঞ্জ উপজেলার আলমগীর কবির,বাদাঘাট ডিগ্রি কলেজের মোঃ তবারক হোসাইন জানান,তাহিরপুর উপজেলার বিষয়ে কোন নিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে না। আমরা সম্মেলন করার জন্য সব সময় প্রস্তুত ছিলাম এখনো আছি। শুধু বার বার তারিখ ঘোষনা করা হয় সম্মেলন হয় না। আমরা আর কত এবাবে থাকব কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের কাছে দাবী জানাই আমাদের উপজেলার সম্মেলন ও আমাদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য। সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক রফিক আহমদ চৌধুরী জানান,আমরা এস এম জাকির হোসেন ভাইয়ের নির্দেশ ক্রমে সবার সাথে যোগাযোগ করে একটি সন্দুর,শুশৃংখল,জাকজমক পূর্ন সম্মেলন সম্পন্ন করার জন্য এবং ছাত্রলীগের অতিথ ঐতিহ্য রক্ষায় সর্বদায় প্রস্তুত আছি।
উল্লেখ্য,২০১০ সালে ফজলে রাব্বি স্বরণ কে সভাপতি ও রফিক আহমদ চৌধুরী কে সাধারন সম্পাদক করে ১০সদস্য বিশিষ্ট সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হয়। এর চার বছর পর ২০১৪সালে ১২১সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত