রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ : কুলাউড়ায় এক দশক ধরে নির্যাতনের শিকার একটি পরিবার



কুলাউড়া প্রতিনিধি ::কুলাউড়া উপজেলার রাউৎগাঁও ইউনিয়নের হাসামপুর গ্রামের একটি সংখ্যালঘু পরিবার এক দশক থেকে বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন-নিপীড়নের শিকার হয়ে আসছে এবং আদালতে মামলা চলমান থাকায় প্রতিপক্ষ ক্ষিপ্ত হয়ে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। বর্তমানে তাঁরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। গত সোমবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মন্টু চন্দ্র মল্লিক ও তাঁর পিতা শৈলেন্দ্র রাম মালাকার।

স্থানিয় একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনে তাঁরা অভিযোগ করে বলেন, হাসামপুর গ্রামে তাঁরা একমাত্র সংখ্যালঘু হিন্দু পরিবার। একই গ্রামের গিয়াস উল্লাহ ২০০৭সাল থেকে তাদের ক্রয়কৃত জমির গাছ, গাছালি কেটে জমি জবর-দখলের অপচেষ্টা চালিয়ে আসছেন। বিভিন্ন সময় তাঁর ভাড়াটে লোকজন দিয়ে ঐ জমি জবরদখলের চেষ্টা চালান। আদালতে বিচারাধীন মামলা ও বিরোধীয় জমির উপর আদালতের স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এ সকল কারণে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে প্রতিপক্ষ।
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয় প্রতিকার চেয়ে শৈলেন্দ্র রাম মালাকার জনপ্রতিনিধি, উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ধরনা দিয়েছেন। কোনো প্রতিকার না পেয়ে ২০১০সালে লিখিত আবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, পুলিশ সুপার, জেলা প্রশাসন ও উপজেলা চেয়ারম্যানের কাছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এই ঘটনার একটি তদন্ত হলেও অবস্থার উন্নতি হয়নি।
তাঁরা বলেন, আদালতের স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চলতি বছরের ১৫ মার্চ রাতের আঁধারে ফের হামলা চালানো হয়। ক্ষতিসাধন করা হয় গাছগাছালি ও ফসলাদির। বিষয়টি শৈলেন্দ্র রাম মালাকার রাউৎগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড সদস্যকে বিষয়টি অবহিত করেছেন।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত