শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে পলক নদীতে বাঁশের বেড়া দিয়ে মাছ শিকার



কমলগঞ্জ সংবাদদাতা:: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার পলক নদীতে বাঁশের বেড়া দিয়ে অবাধে চলছে মাছ শিকার। ফলে মাছের অবাধ গতি প্রবাহে ও পানি নিস্কাশনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হচ্ছে। মাছের সাথে বিভিন্ন জলজ প্রাণী আটকা পড়ে মারা যাচ্ছে। ফিবছর অব্যাহতহারে নদীতে বাঁশের বেড়া (খাঁটি) দিয়ে মাছ শিকার হলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি।
মৎস্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, অবৈধভাবে মাছ শিকার, পোনা মাছ নিধন সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ থাকলেও পতনউষার ইউনিয়নের পলক নদীর ৮টি স্থানে বাঁশের বেড়া (খাটি) দিয়ে মাছ শিকার চলছে। মৎস্য আইনে আড়াআড়িভাবে বেড়া দিয়ে, নদী সেচ দিয়ে মাছ শিকার নিষিদ্ধ থাকলেও ওই এলাকার অসাধু মাছ শিকারীরা আইনের কোন তোয়াক্কা না করে সারা বছরেই মাছ শিকার করছেন। স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, সুযোগ সন্ধানী ও অসাধু মাছ শিকারীরা পলক নদীতে একাধিক বাঁশের খাটি বসিয়ে অব্যাহতভাবে মাছ শিকার করছেন। বাঁশের খাটিগুলো খুবই মজবুদ ও ঘন করে স্থাপন করায় এসব নদী-ছড়ায় মাছ ও পানির স্বাভাবিক প্রবাহ বন্ধ হয়েছে। ফলে গত কয়েকদিনের বৃষ্টিপাতের সময়ে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয় গো-মহিষের বিচরন ক্ষেত তলিয়ে যায়। মাছের গতিপ্রবাহ বন্ধ করে মাছসহ বিভিন্ন জলজ প্রাণী মারা যাচ্ছে।
স্থানীয়রা বলেন, এসব বিষয়ে ফি বছর অভিযোগ দেওয়া হলেও কার্যকর কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়না। কৃষকরা অভিযোগ করে বলেন, ফি বছর নদী, ছড়া ও হাওর থেকে বাঁশের খাটি ও কারেন্ট জাল উচ্ছেদ অভিযান হলেও কাউকে জেল জরিমানা না করায় উচ্ছেদ অভিযানের পরপরই আবার নদী, ছড়ায় বাঁশের খাটি স্থাপন করে মাছ শিকার করা হয়।
এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. শাহদাত হোসেন বলেন, বিষয়টি আমার জানা ছিল না। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সাথে আলোচনা করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত