বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

প্রবাসীর বাড়ি ভাঙচুর : জগন্নাথপুরে বৈঠকে সালিশানের মৃত্যু নিয়ে হত্যামামলা দায়ের



জগন্নাথপুর সংবাদদাতা ::জগন্নাথপুর উপজেলার মীরপুর ইউনিয়নের আধুয়া গ্রামে গত শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় সালিশ বৈঠক শেষে সালিশান আধুয়া গ্রামের ফজর আলীর (৭০) মৃত্যুর ঘটনায় জগন্নাথপুর থানায় হত্যামামলা দায়ের করা হয়েছে। গত সোমবার রাতে নিহত ফজর আলীর পুত্র বাবুল মিয়া বাদি হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। মামলায় আসামি করা হয়েছে আধুয়া গ্রামের মৃত রশিদ উল্লার পুত্র লন্ডন প্রবাসী জাহির আলী (৪৮) ও একই গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর পুত্র ফয়জুল রহমানকে (৪০)।
মামলার এজাহারে বাদি উল্লেখ করেন, গত ৮ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১০টায় আধুয়া গ্রামের ওয়ারিদ উল্লা ও সুনু মিয়ার মধ্যে জায়গাজমি সংক্রান্ত বিরোধ মীমাংসার জন্য ওয়ারিদ উল্লার বসতঘরের সামনে বৈঠক বসে। বৈঠকে ওয়ারিদ উল্লাহর স্ত্রীর পক্ষ নিয়ে ফয়জুল রহমান উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করলে ফজর আলী তাতে বাধা দেন। এতে ফয়জুল রহমান ফজর আলীকে গালিগালাজ ও ঠেলাধাক্কা মারেন। পরে জাহির আলী নিহত ফজর আলীর পাঞ্জাবির কলারে ধরে টানাহেঁচড়া করেন। এসময় ফয়জুল রহমান ফজর আলীকে উপুর্যপুরি ঘুসি মারায় জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।
এদিকে সালিশ বৈঠক শেষে ফজর আলীর মৃত্যুর সংবাদের পর একদল উচ্ছৃঙ্খল লোক আধুয়া গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী মীরপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জাহির আলীর বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর করেন।
লন্ডন প্রবাসী জাহির উদ্দিনের স্ত্রী হাফছা বেগম জানান, গত ৯ এপ্রিল সকাল ৮টায় মৃত ফজর আলীর পুত্র দিলাল মিয়ার নেতৃত্বে ৮/১০জন অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে বাড়িতে প্রবেশ করে হামলা ভাঙচুর চালিয়ে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ ৭ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত