বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

পিডিবি থেকে পল্লি বিদ্যুতে স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত ১৫ দিনের মধ্যে প্রত্যাহার করতে হবে



নিউজ ডেস্ক ::সিলেট মহানগরীর নিকটবর্তী সিলেট সদর উপজেলার পিডিবির আওতাধীন টুকের বাজার ফিডারের অন্তর্ভুক্ত টুকের বাজার, কান্দিগাঁও, মোগলগাঁও, লামাকাজি ও খাদিমনগর ইউনিয়নের একাংশ এলাকা পিডিবি থেকে পল্লি বিদ্যুতে স্থানান্তরের প্রতিবাদে গঠিত টুকের বাজার ফিডার ও পিডিবি বিদ্যুৎ গ্রাহক স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটি সিলেট-এর ডাকে গতকাল বুধবার সকাল ১০ টা থেকে সাড়ে ১১ পর্যন্ত সিলেট সুনামগঞ্জ সড়কের তেমুখী পয়েন্ট থেকে লামাকাজি পশ্চিমপার পর্যন্ত দীর্ঘ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। কর্মসূচি চলাকালে তেমুখী-টুকের বাজার-ঘোপাল-জাঙ্গাইল-বলাউরা, যোগীরগাঁও, হাউসা-চানপুর-লামাকাজি পূর্বপার, লামাকাজি পশ্চিমপার পর্যন্ত বিভিন্ন পয়েন্টে হাজার হাজার ছাত্র জনতা এই কর্মসূচিতে মিলিত হয়ে বিক্ষোভ করেন।
কর্মসূচি চলাকালে বিভিন্ন স্থানে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা সিলেট নগরীর নিকটবর্তী টুকেরবাজার ফিডারের আওতাভুক্ত এলাকাকে পিডিবি থেকে পল্লি বিদ্যুতে স্থানান্তরের প্রক্রিয়াকে গভীর ষড়যন্ত্রমূলক বলে আখ্যায়িত করেন। এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তারা বলেন, আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে হবে। অন্যথায় জনগনের যৌক্তিক এ দাবি বাস্তবায়নের জন্য কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।
সভায় বিদ্যুৎ গ্রাহক স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির আহবায়ক সুজাত আলী রফিক বিদ্যুৎ গ্রাহক স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির পক্ষে ৩ দফা দাবি ঘোষণা করেন। এগুলো হচ্ছে, টুকের বাজার ফিডারকে কোনোভাবেই পল্লি বিদ্যুতে হস্তান্তর করা চলবে না; এ নিয়ে গৃহীত সিদ্ধান্ত অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে, মেট্রোপলিটন এলাকাধীন পল্লি বিদ্যুৎ এলাকাধীন বিদ্যুৎ সরবরাহ অবিলম্বে পিডিবির কাছে হস্তান্তর করতে হবে এবং টুকের বাজার ফিডারসহ সমগ্র সিলেটে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ অব্যাহত রাখতে হবে; বিদ্যুৎ বিভাগের সকল দুর্নীতি বন্ধ করে গ্রাহক হয়রানি রোধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে।
পিডিবি বিদ্যুৎ গ্রাহক স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটি সদস্য বাসসের ব্যুরো চিফ মকসুদ আহমদ মকসুদ ও এম উস্তার আলীর পরিচালনায় পথসভাগুলোতে বক্তব্য রাখেন বিদ্যুৎ স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট নূরে আলম সিরাজী, দক্ষিণ সুরমা কলেজের অধ্যক্ষ সামছুল ইসলাম, কমিটির যুগ্ম আহবায়ক আমির উদ্দিন আহমদ, মোগলগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান মো. হিরণ মিয়া, অধ্যক্ষ মাওলানা জালাল উদ্দিন আল কাদ্রী, মাওলানা মইনুল ইসলাম, জুনেদ আহমদ খোরাসানী, মোজাহিদ আলী, কুতুব উদ্দিন, আমির আহমদ মোস্তফা, আলী হোসেন, মোয়াজ্জিন হোসেন, আশরাফ সিদ্দীকি, শহিদ মো. আকিব অপু, কুতুব উদ্দিন, আলমগীর হোসেন, উবায়দুল কাদের।
মানববন্ধনে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অংশগ্রহণ করে ফতেহপুর কামিল মাদ্রাসা, পশ্চিম সদর উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজ, রাগীব রাবেয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ, সফির উদ্দিন হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজ, হজরত আবু বকর সিদ্দিক (রা.) মাদ্রাসা, রশিদিয়া দাখিল মাদ্রাসা, মইয়ারচর মাদ্রাসায়ে তৈয়্যবিয়া তাহিরিয়া হেলিমিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসা, শাহ্ খুররুম ডিগ্রি কলেজ। এছাড়াও ছাত্রছাত্রীসহ কৃষক, শ্রমিক সর্বস্তরের জনতা স্বতঃস্ফূর্তভাবে এ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন।
মানববন্ধন কর্মসূচি চলাকালে বিভিন্নস্থানে নেতৃত্ব দেন লামাকাজি এলাকার এনামুল হক, রইছ আলী, ফয়সল আহমদ, লামাকাজি পূর্বপার, ইউপি সদস্য মোক্তার আলী, আশিক মিয়া, শফিকুর রহমান সায়েম, ফজলু মিয়া, তাজিদুল ইসলাম, জয়নাল, মুজিবুর রহমান, মো. ফজলু, মঈন উদ্দিন, বিশিষ্ট মুরুব্বি আব্দুর রহিম, মঈন মিয়া, মনু মিয়া, আব্দুল আলী, জালাল আহমদ, আনছার আহমদ, কালা মিয়া, পশ্চিম সদর স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আতিকুর রহমান, হাফিজুর রহমান বাবলু, আঙ্গুর আলম মর্তুজা, আফজল হোসেন, আফজাল হোসেন নাহিদ, শাহাব উদ্দিন, আবু সুফিয়ান, বলাউরা এলাকা, ছালিম উল্ল্যাহ, হাফিজুর রহমান, আমিনুর রহমান, আমির সাগর, মাস্টার আলী হোসেন, ঘোপাল এলাকার কান্দিগাঁও ইউপির সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট ফয়সল আহমদ, রসেল আহমদ উস্তার, আনা মিয়া, বাবুল মিয়া, হারিছ মিয়া, সালা উদ্দিন রুকন, বাবলু মিয়া, হারিছ মিয়া, সালা উদ্দিন রুকন, টুকের বাজার এলাকায় মনফর আলী, তেমুখী এলাকায় নজির হোসেন, বাবুল মিয়া, নিজাম উদ্দিন, শাহাব উদ্দিন, মিফতাহুল হোসেন লিমন, শ্রমিক নেতা ফরিদ আহমদ, আনসার আহমদ, শাহজাহান কবির, আব্দুর রহিম, সেলিম আহমদ, রুহেল আহমদ, আব্দুল হক, শামীম আহমদ, শ্রমিক নেতা সোাহগ মিয়া, নজরুল ইসলাম, নূর আহমদ জাহেদ, সৌরভ দাস, রঞ্জিত, সাহেদ, সিরাজ, আফতাব, কুরবান আলী।
বিশ্বনাথ প্রতিনিধি জানান, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড পিডিবির অধীনে থাকা সাবেক টুকেরবাজার ফিডারের অংশবিশেষ (লামাকাজি থেকে টুকেরবাজার) পল্লি বিদ্যুতে স্থানান্তর প্রক্রিয়ার প্রতিবাদে গতকাল মিছিলে মিছিলে উত্তাল বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজি পয়েন্টে সকাল ১০টায় লামাকাজি ইউনিয়নের পিডিবি গ্রাহকরা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন। দলমত নির্বিশেষে সর্বস্তরের মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে মানববন্ধন কর্মসূচি সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের প্রায় এক কিলোমিটার বিস্তৃত হয়ে পড়ে। সকাল ১০টা থেকে লামাকাজি বাজারের সকল ব্যবসায়ীরা ১ঘন্টা দোকান পাট বন্ধ করে ধর্মঘট পালন করেন এবং শ্রমিকরা কর্মবিরতি পালন করেন।
এলাকার মুরুব্বি মাওলানা মোতাহির আলীর সভাপতিত্বে ও লামাকাজি ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ এনামুল হক এনামের পচিালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন লামাকাজি ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক কবির হোসেন ধলা মিয়া, বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি মাস্টার আপ্তাব আলী, লামাকাজি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রইছ আলী, আওয়ামী লীগ নেতা ডা. শাহনুর হোসাইন, উপজেলা জাতীয় পার্টির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক এ কে এম দুলাল, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল খয়ের লালা, দারুল উলুম লামাকাজী মাদ্রাসার মুহতামিম মুফতি মাওলানা মঈনুল ইসলাম, মুরুব্বি সামছুদ্দিন, ইউপি সদস্য ফয়ছল আহমদ, মো. নুরুজ্জামান, সাবেক ইউপি সদস্য তাজ উদ্দিন, লামাকাজি রাগীব-রাবেয়া উচ্চবিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজের সিনিয়র শিক্ষক মাশুক মিয়া, জাপা নেতা হাবিবুর রহমান মনু, ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন, লামাকাজি বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জয়নাল উদ্দিন, লামাকাজী পয়েন্ট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ডা. এনামুল হক, লামাকাজি অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন ৭০৭-এর সভাপতি আব্দুস ছত্তার, সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন, শ্রমিক নেতা খালেদ আহমদ।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত