শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ওয়ালটন এক্স ফোর প্রো-তে বৈশাখী ছাড়



বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক: বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে এক্স ফোর প্রো স্মার্টফোনে আকর্ষণীয় অফার ঘোষণা করেছে ওয়ালটন। যে-কোনো ওয়ালটন প্লাজা বা ব্র্যান্ডেট আউটলেট থেকে এক্স ফোর প্রো নগদ মূল্যে কিনলে পাওয়া যাচ্ছে ১ হাজার ৫০০ টাকা ছাড়। অফার চলবে ৩রা বৈশাখ পর্যন্ত।

উন্নত ফিচার ও মাল্টিটাস্কিং সুবিধাযুক্ত দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারির এক্স ফোর প্রো বর্তমানে গ্রাহক চাহিদার শীর্ষে। সেটটির মূল্য ২৮ হাজার ৯৯০ টাকা। পাওয়া যাচ্ছে আকর্ষণীয় নানা রঙে।

৫.৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি সুপার অ্যামোলেড ২.৫ডি কার্ভড (বাঁকানো) পর্দার এক্স ফোর প্রো-তে ব্যবহৃত হয়েছে ৬৪ বিট সম্পন্ন ২ গিগাহার্টজের শক্তিশালী অক্টা-কোর প্রসেসর। সম্পূর্ণ মেটাল বডির ফোনটির ডিসপ্লেকে আঘাত ও আঁচর থেকে সুরক্ষা দিতে রয়েছে চতুর্থ প্রজম্মের কর্নিং গরিলা গ্লাস।

আছে দ্রুতগতির ৪ জিবি ডিডিআর৩ র‌্যাম। গ্রাফিক্স হিসেবে মালি টি-৮৬০ ব্যবহার করায় গেমিং হয়েছে রোমাঞ্চকর। এক্স ফোর প্রো’তে আছে ৬৪ জিবি ইন্টারনাল মেমোরি। ফলে অনেক বেশি ভিডিও, ছবি, মিউজিক, অ্যাপসসহ অসংখ্য ফাইল সংরক্ষণ করা যাচ্ছে। সুযোগ আছে ১২৮ জিবি পর্যন্ত বর্ধিত মেমোরি ব্যবহারের।

‘এক্স ফোর প্রো’তে দুর্দান্ত ছবি তোলার জন্য রয়েছে দ্রুতগতির পিডিএএফ প্রযুক্তির অটোফোকাস ও এলইডি ফ্ল্যাশ সুবিধাসহ বিএসআই সেন্সরযুক্ত ১৬ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা, যার অ্যাপারচার সাইজ এফ ২.০। আকর্ষণীয় সেলফির জন্য আছে এফ ২.২ অ্যাপারচার সাইজের বিএসআই সেন্সরের ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। নরমাল মোড ছাড়াও ফেস বিউটি, এইচডিআর, টাইম ল্যাপস, প্যানোরমা, স্মার্ট সিন, নাইট মোড এবং জিফের মতো আকর্ষণীয় মোডে ছবি তোলা যায়। রয়েছে প্রফেশনাল ক্যামেরা মোড অপশন।

সিএনসি (কম্পিউটার নিউমেরিক্যালি কন্ট্রোল) মেশিনে প্রক্রিয়াজাত ৮ দশমিক ৩ মিলিমিটার পুরুত্বের পাতলা এই সেটের হোম বাটনে সুপার ফাস্ট রেসপন্স ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারের সংযোজন করা হয়েছে। ফলে ০.৩ সেকেন্ডের মধ্যেই সেটটি আনলক করা যাচ্ছে। এই সেন্সরের মাধ্যমে খুব সহজেই সেটে সংরক্ষিত তথ্য সুরক্ষা পাচ্ছে।

অ্যান্ড্রয়েট মার্শম্যালো ৬.০ অপারেটিং সিস্টেম পরিচালিত ফোনটিতে ব্যবহৃত হয়েছে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। ফলে দীর্ঘক্ষণ ব্যাটারি ব্যাকআপ পাওয়া যায়। এক্সপ্রেস ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি থাকায় দুই ঘণ্টারও কম সময়ে ফোনটিতে পূর্ণ চার্জ হয়। স্বাভাবিক ব্যবহারে ৩ দিন পর্যন্ত চার্জ থাকে। টু-জি মোডে ৪৫ ঘন্টা আর থ্রিজি মোডে ৩৫ টকটাইম পাওয়া যায়। একবার ফুল চার্জ দিলে টানা ১২ ঘন্টা পর্যন্ত এইচডি ভিডিও দেখা যায়।

কানেক্টিভিটির জন্য আছে ডুয়েল ব্যান্ড ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ভার্সন ৪, ওয়্যারলেস ডিসপ্লে শেয়ারিং, ওয়াই-ফাই হটস্পট, ওটিএ ও ওটিজি সুবিধা। আছে ইউএসবি কিবোর্ড, গেমিং কনসোল ও পেনড্রাইভ ব্যবহার সুবিধাও। দুই সিম সুবিধার ফোনটি থ্রিজি ও ফোরজি সমর্থন করে।

বিল্ট-ইন আইআর ব্লাস্টার থাকায় এক্স ফোর প্রো ব্যবহারকারীর টেলিভিশন, এয়ারকন্ডিশনারসহ অন্যান্য হোম অ্যাপ্লায়ান্সের রিমোর্ট কন্ট্রোলার হিসেবেও ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে। ডাটা ক্লোনিং সুবিধা থাকায়, পুরনো ফোন থেকে ছবি, অ্যাপ, কনট্রাক্টস এমনকি মেসেজসহ গুরুত্বপূর্ণ ফাইল ট্রান্সফার করা যায় সহজেই। মাল্টিমিডিয়াতে আছে ফুল এইচডি ভিডিও প্লে-ব্যাক ও ক্যামকর্ডার। ডিটিএস মিউজিক সিস্টেম থাকায় অত্যন্ত নিখুত শব্দ পাওয়া যায়। আছে স্প্লিট স্ক্রিন সুবিধাও।

এছাড়াও দেশের সকল ওয়ালটন প্লাজা ও ব্র্যান্ডেট আউটলেটে ০% ইন্টারেস্টে ৬ মাসের ইএমআই সুবিধায় কেনা যাবে সব মডেলের ওয়ালটন স্মার্টফোন। ১২ মাসের সহজ কিস্তিতে কেনার সুযোগ থাকছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত