সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশ অমান্য করে ঝুলছে ব্যানার



বিশেষ প্রতিনিধি: বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রত্যেক নেতা- কর্মীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে গত ২১ এপ্রিল দলীয় প্যডে এক জরুরী বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। এতে উল্লেখ করা হয় কোন ব্যানার, ফেস্টুন এবং পোস্টারে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের ছবি ব্যবহার করা যাবে না। শুধুমাত্র জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার সুযোগ্য কন্যা দেশরতœ শেখ হাসিনা এবং তরুণ প্রজন্মের অহংকার সজীব ওয়াজেদ জয় এর ছবি ব্যবহার বাধ্যতামূলক। যারা এই নির্দেশ অমান্য করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোরভাবে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এছাড়া ইতোমধ্যে যে সব নেতা-কর্মী বিভিন্ন কর্মসূচী ও দিবস উপলক্ষে নিজ নিজ ব্যানার, ফেস্টুন এবং পোস্টারে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের ছবি ব্যবহার করেছেন তা ৩দিনের মধ্যে সরিয়ে ফেলতে কঠোর নির্দেশ দেওয়া হয়। নির্দেশনার ৭দিন অতিবাহিত হলেও ২৭এপ্রিল বিকালে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে কুলাউড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু সায়হাম রুমেলের শুভেচ্ছা ব্যানার কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের ছবিসহ টানানো দেখা যায়। কেন্দ্রীয় কঠোর নির্দেশ থাকার পরও কুলাউড়া শহরের দক্ষিণবাজার পয়েন্ট, ষ্টেশন চৌমুহনা, সাপ্তাহিক কুলাউড়ার সংলাপ কার্যালয়ের সম্মুখের নারিকেল গাছে, পৌরসভা কার্যালয়ের সম্মুখে, কুলাউড়া রেলওয়ে ষ্টেশন প্লাট ফরমে ও উত্তরবাজার পয়েন্টে ঝুলছে এসকল ব্যানার।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কুলাউড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নিয়াজুল তায়েফ জানান, কেন্দ্রের নির্দেশ পাওয়ার পর মৌখিকভাবে আমার ইউনিটের সবাইকে ব্যনার নামানোর জন্য জানিয়েছি। এখন ৭দিন পর আমাদের নেতা সারা বাংলার ছাত্রসমাজের অহংকার বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন ভাইয়ের ছবি দিয়ে এরকম ব্যানার টানানো থাকাটা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমি বিষয়টি জেলা ও কেন্দ্রের নেতৃবৃকে অবহিত করবো।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত