সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মুক্তিযোদ্ধা ও আবৃত্তিশিল্পী কাজী আরিফের মৃতদেহ দেশে আনার প্রস্তুতি চলছে



সাহিত্য ডেস্ক::বিশিষ্ট ছড়াকার ও আবৃত্তিশিল্পী মুক্তিযোদ্ধা কাজী আরিফ আর নেই। যুক্তরাষ্ট্রের ম্যানহাটানের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালের ডাক্তাররা বাংলাদেশ সময় শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

৬৪ বছর বয়স্ক কাজী আরিফ দু’দিন ধরে ক্লিনিক্যাল ডেথ ছিলেন। নিউ ইয়র্কের মাউন্ট সিনাই সেন্ট লিওক্স হাসপাতালে গত ২৫ এপ্রিল কাজী আরিফের দ্বিতীয় দফা ওপেন হার্ট সার্জারি হয়। এরপর থেকে তার শারীরিক অবস্থা ক্রমাগত অবনতি হতে থাকে। এরপর তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়।

গতকাল থেকে বিভিন্ন মিডিয়া এবং ফেইসবুকে তার ক্লিনিক্যাল ডেথের খবরে ছড়িয়ে পড়লে দেশে-বিদেশে সাংস্কৃতিকর্মীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর তার হার্টের ভাল্ব অকেজো হয়ে গেলে দ্রত হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভাল্ব পুনঃস্থাপন এবং আর্টারিতে বাইপাস সার্জারি করা হলে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। এরপর তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে নেয়া হয়। কিন্তু সেখানে আর তার জ্ঞান ফেরেনি। তার মৃত্যুর খবর শোনার পর হাসপাতালের সামনে ভিড় করেন নিউইয়র্কে অবস্থানরত বাংলাদেশের সাংস্কৃতিকর্মীরা।

কাজী আরিফ ১৯৫২ সালের ৩১ অক্টোবর রাজবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭১ সালে ১ নম্বর সেক্টরে মেজর রফিকের কমান্ডে সরাসরি মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। আরিফের ইচ্ছে মোতাবেক তার লাশ বাংলাদেশে আনার প্রস্তুতি চলছে বলে তার পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত