শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

যুদ্ধাপরাধ: হবিগঞ্জের আ. লীগ নেতাকে সেফ হোমে জিজ্ঞাসাবাদ



হবিগঞ্জ প্রতিনিধি::মানবতা বিরোধী অপরাধের অভিযোগে গ্রেফতার হবিগঞ্জের আওয়ামী লীগের প্রাক্তন নেতা আবুল খায়ের গোলাপের বিরুদ্ধে অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ২২ আগস্ট দিন ধার্য করেছেন ট্রাইব্যুনাল। একইসঙ্গে আবুল খায়ের গোলাপ আগামী ১২ জুলাই সেফহোমে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার ২০ জুন রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের প্রেক্ষিতে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচারপতি মো: শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বাধীন ২ সদস্যর বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন প্রসিকিউটর রেজিয়া সুলতানা চমন। এর আগে গত ১১ এপ্রিল আবুল খায়ের গোলাপকে গ্রেফতার করে হবিগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আবুল খায়ের গোলাপ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার গজনাইপুর গ্রামের বাসিন্দা এবং সাবেক ১১ নং গজনাইপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন।

২০১৬ সালের ১৩ মার্চ আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুনাল ধানমন্ডির তদন্ত সংস্থা কার্যালয়ে নবীগঞ্জ উপজেলার আতানগীরি গ্রামের রইছ উল্লার স্ত্রী সুকুরি বিবি এক অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, প্রাক্তন চেয়ারম্যান গোলাপ ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধ চলাকালিন সময়ে আল বদর, আল-সামস ও রাজাকার বাহিনীর সংগঠক ছিলেন। গোলাপের নেতৃত্বে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় দিনারপুর হাই স্কুলে ক্যাম্প স্থাপন করে বিভিন্ন স্থান থেকে যুবতি মেয়েদের ধরে এনে ধর্ষণসহ পাশবিক অত্যাচার নির্যাতন করত।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত