বৃহস্পতিবার, ২২ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সানির জামিন বাতিল চাইলেন নাসরিন



নিউজ ডেস্ক:: ক্রিকেটার আরাফাত সানির জামিন বাতিলের আবেদন করেছেন স্ত্রী দাবিদার নাসরিন সুলতানা। অথচ এর আগে সেই নাসরিনই আদালতকে বলেছিলেন, সানিকে জামিন দিলে আমার কোনো আপত্তি নেই।
বুধবার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দায়ের করা মামলায় জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় জামিন নিতে আদালতে যান আরাফাত সানি। এ সময় আরাফাত সানির আইনজীবীরা তার স্থায়ী জামিন আবেদন করেন। অন্যদিকে নাসরিন সুলতানা তার জামিন বাতিলের আবেদন করেন।
আদালতে কান্নাজড়িত কণ্ঠে নাসরিন বলেন, সানি কারাগার থেকে বের হয়ে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেনি। সে আমার সঙ্গে কোনো আপস-মীমাংসা করেনি। তার বাসায় গেলে মারধর করে। এখন আমি তার জামিন বাতিল চাই।
অন্যদিকে সানির আইনজীবী জুয়েল আহম্মেদ ও মুরাদুজ্জামান মুরাদ বলেন, নাসরিনকে বসুন্ধরায় একটি ফ্ল্যাট ভাড়া করে দিয়েছে সানি। নাসরিন চায় সানি যেন তার প্রথম স্ত্রীকে তালাক দেন।
উভয় পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লা ৬ জুলাই পর্যন্ত সানির জামিন মঞ্জুর করেন এবং আপস-মীমাংসার পরামর্শ দেন।
এর আগে গত ৯ মার্চ বিচারককে নাসরিন বলেছিলেন, সানির জামিন দিলে আমার কোনো আপত্তি নেই। আমাদের দুই জনের মধ্যে আপস-মীমাংসা হয়েছে। সে আমাকে নিয়ে সংসার করবে।
নাসরিনের আপত্তি না থাকায় সেদিন বিচারক সানির জামিন নাসরিন সুলতানার জিম্মায় মঞ্জুর করেন।
উল্লেখ্য, গত ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকার ৪নং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে যৌতুকের জন্য মারধরের অভিযোগে ক্রিকেটার আরাফাত সানি ও মা নার্গিস আক্তারের বিরুদ্ধে তৃতীয় মামলা করেন নাসরিন সুলতানা। এরপর আদালত মামলাটি এজাহার হিসেবে নেয়ার জন্য মোহাম্মদপুর থানাকে নির্দেশ দেন।
৮ ফেব্রুয়ারি আরাফাত সানি ও তার মা নার্গিস আক্তারের বিরুদ্ধে করা মামলাটি এজাহার হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে মোহাম্মদপুর থানা।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত