শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ব্রিটেনের নির্বাচন: পূর্ব লন্ডনে ‘লেবার দূর্গে’ অপ্রতিদ্বন্দ্বী কি সিলেটের রুশনারা?



নিউজ ডেস্ক:: ব্রিটিশ পার্লামেন্টে বাংলাদেশি-বংশোদ্ভূত প্রথম এমপি রুশনারা আলি। ২০১০ সালে তিনি লেবার পার্টি থেকে প্রথমবার নির্বাচিত হয়েছিলেন। ৮ই জুনের নির্বাচনে তিনি আবারও লন্ডনের বাংলাদেশি অধ্যূষিত বেথনাল গ্রীন এন্ড বো আসনে প্রার্থী হয়েছেন।
এই আসনটি বহু বছর ধরেই লেবার পার্টির দখলে এবং সর্বশেষ নির্বাচনেও রুশনারা আলি বিপুল ব্যবধানে নির্বাচিত হয়েছিলেন।
গেলবার প্রায় ২৪ হাজার ভোটের ব্যবধানে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ পার্টির প্রার্থীকে হারিয়েছিলেন রুশনারা আলি। বলা যেতে পারে, বেথনাল গ্রিন এন্ড বো লেবার পার্টির নিরাপদতম আসনগুলোর একটি। ফলে এবারও তিনি নির্বাচিত হতে পারেন সহজ ব্যবধানে।
বর্তমানে ছায়া মন্ত্রিসভার শিক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব পালনরত রুশনারা আলী ২০১০ সালেও এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন। তখন ব্যবধান ছিল ১১ হাজার ৫৭৪ ভোট। ২০১৫ সালের নির্বাচনে দ্বিগুণ ব্যবধানে জয়ী হয়েছিলেন।
নির্বাচনের ব্যাপারে স্বাভাবিকভাবেই রুশনারা আলী এবং তার সমর্থকদের বেশ নিরুদ্বিগ্ন এবং ভারমুক্ত বলেই মনে হচ্ছে। তবে যেহেতু রোজার মাঝখানে ভোট হচ্ছে, তাই মুসলিম ভোটারদের সবাই ভোট দিতে যাবেন কিনা সেটা নিয়ে একটু চিন্তিত তারা।
রুশনারা আলি বেড়ে উঠেছেন এই পূর্ব লন্ডনেই, কাজেই এখানকার অনেক মানুষই তার চেনা জানা, ওয়াকিবহাল এখানকার মানুষের সমস্যা সম্পর্কেও। সিলেটের আঞ্চলিক ভাষায় তিনি স্বচ্ছন্দে কথা বলেন তাদের সঙ্গে।
এদিকে, কনজারভেটিভ পার্টির সমর্থকরা কিছুটা হতাশ যে তাদের প্রার্থী এই আসনে জয় অসম্ভব ধরে নিয়ে সেরকম কোন নির্বাচনী প্রচারণাই চালাচ্ছেন না। কনজারভেটিভ পার্টি এবার যাকে প্রার্থী করেছে তিনি এক তরুণ আইনজীবী শার্লোট চিরিকো । টাওয়ার হ্যামলেটস এলাকায় মাদকের সমস্যা নিয়ে প্রতিবাদ জানাতে তিনি কিছু দলীয় সমর্থককে নিয়ে জড়ো হয়েছিলেন টাউন হলের সামনে।
নির্বাচনে হাল ছেড়ে দেয়ার কথা অবশ্য অস্বীকার করলেন তিনি।
বেথনাল গ্রীন আসনের জনসংখ্যার একটা বিরাট অংশ বাংলাদেশি, সর্বশেষ হিসেবে প্রায় ৩২ শতাংশ। কিন্তু এই বাংলাদেশিদের ভোটের জন্য এবার রুশনারা আলীর প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে মাঠে নেমেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আজমল মাশরুর।
আজমল মাশরুর নিজেকে মধ্য-বামপন্থী আদর্শের কাছাকাছি বলে বর্ণনা করলেও, তার প্রতিপক্ষের দাবি, মূলত ইসলামপন্থী লোকজনই গিয়ে জড়ো হয়েছে তাঁর পেছনে।
লেবার সমর্থকরা মনে করেন আজমল মাশরুর কিছু বাংলাদেশির ভোটে ভাগ বসাতে পারলেও রুশনারা আলীর জয়ের পথে বড় কোন চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিতে পারবেন না।
(প্রতিবেদনটি বিবিসি বাংলা অবলম্বনে তৈরি করা হয়েছে)

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত