সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বড়লেখায় দুই যুবকের লাশ উদ্ধার



বিশেষ প্রতিনিধি:: বড়লেখায় জাকির হোসেন ও হেলাল উদ্দিন নামে দুই যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
৮ জুন বৃহস্পতিবার বিকেলে পড়ে যাওয়া মোবাইল খুজতে গিয়ে টয়লেটের ট্যাংকে পড়ে জাকির হোসেন (২৪) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। অপরদিকে হেলাল উদ্দিন (২৩) নামে এক কলেজ ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত হেলাল উপজেলার সুফিনগর গ্রামের রফিক উদ্দিনের ছেলে ও বিয়ানীবাজার সরকারী কলেজের স্নাতক ২য় বর্ষের ছাত্র। পৃথক ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। নিহত জাকির উপজেলার দক্ষিণ শাহবাজপুর ইউনিয়নের উত্তর ঘোলসা গ্রামের মৃত আখতার আলীর ছেলে।
থানা পুলিশ, হাসপাতাল ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাতে হেলাল উদ্দিন সেহরী খেয়ে নিজ শয়নকক্ষে ঘুমাতে যায়। সকালে পরিবারের সদস্যরা তার সাড়া না পেয়ে দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান। হেলাল কি কারণে আত্মহত্যা করেছে, সে বিষয়ে পরিবারের সদস্যরা স্পষ্ট কিছু বলতে পারেননি। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।
অপরদিকে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাইরের টয়লেটে গিয়ে জাকির হোসেনের মুঠোফোন ট্যাংকে পড়ে যায়। পরে মুঠোফোনটি উদ্ধারের জন্য ট্যাংকের ঢাকনা খুলে বাঁশ ধরে নিচে নামতে গিয়ে ট্যাংকের মধ্যে পড়ে গেলে ঘটনাস্থলেই জাকিরের মৃত্যু ঘটে। এসময় জাকির হোসেনকে উদ্ধার করতে ছোট ভাই আলী হোসেনও ট্যাংকে পড়ে আহত হন। পরে আলী হোসেনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করা হয়।
বড়লেখা থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ সহিদুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘মোবাইল ফোন ওঠাতে গিয়ে নিজেই ঢাকনা খুলেছে। বাঁশ দিয়ে ট্যাংকের নিচে নামতে গিয়ে দুর্ঘটনাবশত সে নিচে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই জাকির হোসেন মারা যায়।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত