রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ভুল সম্পর্কে জরিয়ে যান নি তো!



লাইফস্টাইল ডেস্ক::ভালবাসা বিশ্বাসের আরেক নাম। কিন্তু মানুষ বড়ই বিচিত্র। একমাত্র মানুষই পারে তার ভালবাসার মানুষের সাথে প্রতারণা করতে। কিন্তু আপনি কীভাবে বুঝবেন আপনি সঠিক মানুষের প্রেমে পড়েছেন কিনা? সম্পর্ক চলা অবস্থায় কিছু লক্ষণ দেখে বুঝতে পারবেন আপনি ভুল মানুষের প্রেমে পড়েছেন। সম্পর্কের শুরু দিকে যদি বুঝতে পারেন, তবে তা আপনার জন্যই মঙ্গল।

১. আপনি আপনার ব্যক্তিত্ব তার সামনে প্রকাশ করতে পারছেন না। তার ইচ্ছানুযায়ী নিজেকে পরিবর্তন করতে হচ্ছে? তার সামনে নিজেকে প্রকাশ করতে সাহস পাচ্ছেন না? এমনকি সে আপনার আচার আচরণ, অভ্যাস সম্পূর্ণ আপনাকে পরিবর্তন করে ফেলছে। যে আপনার কাজ, চিন্তা আপনার স্বভাব মেনে নিতে না পারে, সে আপনাকে মেনে নিবে কি করে? এমন মানুষ থেকে দূরে থাকুন যে আপনাকে পরিবর্তন করে ফেলে।

২. আপনি যদি ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেন তখন আপনি নিজেকে কোথায় দেখতে পান? আপনি কি ভয় পান যে আপনি ভবিষ্যতে একা কাটাবেন আপনার জীবন? এই ভয় মনে কাজ করলে বিয়ে করবেন না। আপনি আপনার প্রিয় মানুষটিকে মন থেকে ভালবেসেছেন। তার জন্য সবকিছু করছেন, কিন্তু সে তা বুঝছে না। এমনকি আপনার কাজের গুরুত্বও সে দিচ্ছে না। তবে বুঝতে হবে আপনি ভুল মানুষের প্রেমে পরছেন।

৩. আপনার হবু সঙ্গীটি কি মানসিক চাপ নেয়ার ব্যাপারে অনেক বেশী রিঅ্যাক্ট করেন? তিনি কি একেবারেই মানসিক চাপ সহ্য করতে পারেন না বা মানসিক চাপের সময় তিনি একেবারে অন্য কেউ হয়ে যান? তাহলে এই বিয়ের ব্যাপারে দ্বিতীয়বার ভেবে দেখুন। কারণ জীবনে এমন অনেক সমস্যা আসবে যা হয়তো তিনি সহ্য করতে না পেরে অনেক উলটো পাল্টা কাজ করে ফেলতে পারেন যা আপনাদের সম্পর্ক নষ্ট করে দেবে।

৪. যদি আপনার জীবন সঙ্গীর আপনাকে নিয়ে ভবিষ্যতের কোনো পরিকল্পনা না করে থাকেন তাহলে বুঝে নেবেন তার নিজের অন্য কোনো পরিকল্পনা রয়েছে, বিয়ে করা তার মধ্যে নেই। যদিও ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেও রাখলে অনেক ক্ষেত্রেই তা হয় না। কিন্তু চিন্তা করাটাও অনেক সময় বিশ্বাস যোগায় মনে। আপনার মন কি বলে একটি বার ভেবে দেখুন। কারন অনেক সময় অবচেতন মন থেকে সায় পাওয়া যায় না। এই অবচেতন মনে ডাক অনেকেই অবহেলা করে থাকেন। কিন্তু তা একেবারেই উচিত নয়। অনেক ক্ষেত্রে এই অবচেতন মন সঠিক কথাটিই বলে থাকে।

৫. সঙ্গীটি যদি অনেক বেশী খুঁত খুঁতে স্বভাবের হয়ে থাকে তাহলে বিয়ের ব্যাপারে আরও একবার ভালো করে ভেবে দেখুন। কারণ যারা অনেক খুঁতখুঁতে স্বভাবের হয়ে থাকেন তাদেরকে কোনো কিছু দিয়েই খুশি করা সম্ভব হয় না। যার ফলে সম্পর্ক টেনে নেয়া দুর্বিষহ হয়ে উঠে। আপানার সঙ্গী আপনার কথা মনোযোগ দিয়ে শোনে না। তাকে দেখলে মনে হবে সে আপনার কথা শুনছে, কিন্তু আসলে তার মন অন্য কোন দিকে। অথচ সে নিজের কথা ঠিকই বলছে নিজের কাজ ঠিকই আপনাকে দিয়ে করিয়ে নিচ্ছে।

৬. সম্পর্কে সব সময় কেয়ার করা ভাল, তা ঠিক নয়। অনেক সময় অতিরিক্ত খোঁজখবর, অতিরিক্ত কেয়ার আপনাদের সম্পর্ক নষ্ট করে দিয়ে থাকে। অতিরিক্ত কোন কিছুই ভাল না। অতিরিক্ত ভালবাসাও না। আপনার প্রতিটি কাজের জবাবদিহিতা যদি তাকে দিতে তবে তার সাথে সম্পর্ক না রাখাই ভাল।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত