সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মন্ত্রণালয়ের তথ্যবন্যায় ২৭ জেলায় নিহত ৯৩



নিউজ ডেস্ক::দেশের উত্তরাঞ্চলে সৃষ্ট বন্যায় এ পর্যন্ত শিশুসহ ৯৩ জন মারা গেছে বলে জানিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়।

শনিবার (১৯ আগস্ট) আন্তঃমন্ত্রণালয়ের বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব শাহ কামাল।

মন্ত্রণালয়ের বৈঠক শেষে জানানো হয়, বন্যার কারণে ৩১ কি.মি. রাস্তা সম্পূর্ণ ও ২ হাজার ৭৮৯ কিমি রাস্তা আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৩৫ কি.মি. বাঁধ সম্পূর্ণ ও ২৮৯ কি.মি. আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৫ লাখ ৩১ হাজার ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়ের পরিসংখ্যান বলছে, এ বছর বন্যায় এখন পর্যন্ত মোট ১৩৩টি উপজেলা, ৪৩টি পৌরসভা, ৮৫৫টি ইউনিয়ন, ৫৪৬৯টি গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এরই মধ্যে বন্যার্ত এলাকাগুলোতে বন্যার্তদের জন্য খোলা হয়েছে আশ্রয়কেন্দ্র। বন্যার্ত মানুষগুলোর জন্য বানানো মোট আশ্রয়কেন্দ্রের সংখ্যা ৯৮৬টি, এসব আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নেওয়া মানুষের সংখ্যা ৪০২৬৬৯ জন।

এ পর্যন্ত বন্যায় যাতায়াতের অসুবিধা ও স্কুল ডুবে যাওয়ায় বন্ধ হয়ে গেছে মোট ৩১৯৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ির সংখ্যা ১৪,৭৩৭ এবং আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া ঘরবাড়ির সংখ্যা ২৪৭,৮২৬টি। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ফসলী জমির পরিমাণ ৬১৮,৭০৯ হেক্টর।

দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ ওমর ফারুক দেওয়ান বলেন, এবারের বন্যায় এখন পর্যন্ত না খেয়ে কোনো মানুষ মারা যায়নি। তবে সাপের কামড়ে, সাঁকো থেকে পড়ে গিয়ে বা একা শিশু পানিতে ডুবে এ পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা ৯৩ জন। নিখোঁজ রয়েছে ১৪ জন।

এছাড়া এরই মধ্যে এসব বন্যাক্রান্ত এলাকায় ১০ হাজার ৬৯৫ মেট্রিক টন চাল, ৩ কোটি ১ লাখ টাকা, ৩০ হাজার শুকনো খাবারের প্যাকেট ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত