শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

শুরুতেই বিপদে বাংলাদেশ



খেলাধুলা ডেস্ক::রানের পাহাড় তারা করতে নেমে প্রোটিয়া পেসার রাবাদার বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরেন টাইগার ওপেনার সৌম্য সরকার। বাংলাদেশ ইনিংসের সপ্তম ওভারেই কাগিসো রাবাদার করা চতুর্থ ওভারের চতুর্থ বলে সৌম্য সরকারের লেগ স্টাম্প উড়ে যায়। সাজঘরে ফেরার আগে ২৪ বলে ৯ রান করেন তিনি। এর পরই উইকেট বিসর্জনের মিছিলে যুক্ত হন আরেক ব্যাটসম্যান মুমিনুল হক। ৪ রান করে তিনিও ফিরে যান প্যাভিলিয়নে। এর কিছুক্ষণ পরেই মিছিলটি লম্বা করেন টাইগার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। আফ্রিকান ফিল্ডার টিম্বার হাওয়ায় ভেসে নেওয়া দুর্দান্ত ক্যাচের শিকার করে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন মুশফিক। ফেরার আগে তিনি করেন ৮ বলে ৭ রান! এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেট হারিয়ে ৩৬ রান। যেখানে ৫৭৩ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে স্বাগতিকরা। সেখানে শুরুতেই টিম বাংলাদেশের এই ব্যাটিং বিপর্যয় ব্যাকফুটে ঠেলে দিয়েছে সফরকারীদের।

এদিকে, বৃষ্টির জন্য বিলম্বে শুরু হয়েছিল ব্লুমফন্টেইন টেস্টের দ্বিতীয় দিন। প্রথম দিন বাংলাদেশের বোলারদের নাস্তানাবুদ করে ছেড়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকান দুই ওপেনার এইডেন মারক্রাম ও ডিন এলগারের পর হাশিম আমলা ও ফাফ দু প্লেসিসের সেঞ্চুরিতে পাঁচশ রান ছাড়িয়েছে স্বাগতিকরা।

তবে ধারণা করা হচ্ছিল, বৃষ্টির পর দ্বিতীয় দিন হয়তো বাংলাদেশের বোলাররা ঘুরে দাঁড়াতে পারবেন।কিসের ঘুরে দাঁড়ানো! উল্টো তাদের বাজে বোলিংকে পুঁজি করে হাশিম আমলা ও ফাফ দু প্লেসিসও তুলে নিয়েছেন ব্যক্তিগত সেঞ্চুরি। এতে প্রথম পাঁচ টপ অর্ডারের ব্যাটসম্যানের মধ্যে চারজনই সেঞ্চুরির দেখা পেলেন।দিনের একমাত্র উইকেট বাংলাদেশ পেয়েছে লাঞ্চের পর প্রথম ওভারেই। দ্বিতীয় সেশনে আধঘণ্টা খেলে ৪ উইকেটে ৫৭৩ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা।দ্বিতীয় সেশনের প্রথম ওভারেই ভাঙে প্রায় আড়াইশ রানের এ জুটি। আমলাকে বোল্ড করেন শুভাশীষ রায়। ১৬৩ বলে ১৭ চারে ১৩২ রান করেন আমলা। লাঞ্চের পর ৭ ওভার খেলেই ইনিংস ঘোষণা করে স্বাগতিকরা। এ সময় মাঠেই ছিলেন অধিনায়ক দু প্লেসিস। ১৩৫ রানে তিনি অপরাজিত ছিলেন ১৮১ বল খেলে। দুটি করে চার ও ছয় মেরে ২৮ রানে খেলছিলেন কুইন্টন ডি কক।

দ্বিতীয় দিনের শুরুর মতো প্রথম দিনও চরম হতাশায় কেটেছে বাংলাদেশের। দক্ষিণ আফ্রিকার দাপুটে ব্যাটিংয়ে সংগ্রাম করতে হয়েছে সফরকারী বোলারদের। প্রথম দিনেই প্রোটিয়ারা স্কোরে জমা করে ৩ উইকেটে ৪২৮ রান। সেই হতাশা ঝেড়ে নতুন উদ্যোমে দ্বিতীয় দিনের মিশনে মাঠে নামে

স্কোর:
বাংলাদেশঃ ৩৬/৩। ইমরুল ১৫* মাহমুদল্লাহ ০*
দক্ষিণ আফ্রিকাঃ ৫৭৩/৪।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত