বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

শেষ পর্যন্ত কী আছে মুশফিকের ভাগ্যে!



খেলাধুলা ডেস্ক::মুশফিকুর রহীমকে বাংলাদেশে দলের টেস্ট অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দেয়ার গুঞ্জন উঠেছে ব্লুমফন্টেইন টেস্ট চলাকালেই। এর পর সংবাদ সম্মেলনেও তার বক্তৃতা নিয়ে ক্রিকেট বোর্ডের অসন্তোষ জানিয়েছেন সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। পাল্টাপাল্টি বক্তব্য পাওয়া গেছে দুজনের কথায়। কিন্তু এসব সমস্যার শেষ কোথায় তা কেউ জানে না। কি আছে মুশফিকের ভাগ্যে তা জানার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আরো কিছু সময়।

ব্লুমফন্টেইন টেস্টের প্রথম দিন ও টেস্ট শেষের সংবাদ সম্মেলনের বক্তব্য নিয়ে মুশফিকের ওপর ক্ষুব্ধ বোর্ড। সাম্প্রতিক পরিস্থিতির দিকে ইঙ্গিত রোববার মুশফিক বলেছেন, দল ভালো করলে সব কৃতিত্ব যায় টিম ম্যানেজমেন্টের ভাগে, আর খারাপ করলে সব দোষ অধিনায়কের। আমি এটিও মেনে নিতে প্রস্তুত আছি।’

অনেক সমালোচনা আর প্রশ্নের জবাবে মুশফিকুর রহীম জানিয়েছেন তিনি নিজে থেকে টেস্ট অধিনায়কের পদ থেকে সড়ে দাড়াবেন না। বল বোর্ডের কোর্টে ঠেলে দিয়ে বলেছেন, ‘দেশকে নেতৃত্ব দেয়ার সম্মানটা বোর্ড আমাকে দিয়েছে। তাঁরা যদি সন্তুষ্ট না হয়, তাহলে যা খুশি সিদ্ধান্ত নিতে পারে’। ম্যাচ শেষে ব্লুমফন্টেইন টেস্টের সংবাদ সম্মেলনে এসে এসব কথা বলেছেন তিনি । কথা বলেছেন বাউন্ডারি লাইনে ফিল্ডিং করার বিষয়ে ‘টিম ম্যানেজমেন্টের চাপিয়ে দেয়া’ সিদ্ধান্ত নিয়েও। টস জেতার পর ফিল্ডিং নেয়ার সিদ্ধান্ত সমালোচনার জবাবেও মুশিফিক বলেছেন টস না জিতলেই ভালো হতো।

আর এর প্রতিক্রিয়ায় আজ সোমবার বোর্ড সভাপতি বলেছেন, ‘ও যেসব মন্তব্য করছে, সেটা দেশের ক্রিকেটের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে। টস নিয়ে অধিনায়ক এ ধরনের কথা বলতে পারে না। এটা দলের জন্য ভালো হচ্ছে না’। নাজমুল হাসান আরো বলেন, ‘সে কোথায় ফিল্ডিং করবে, সে সিদ্ধান্ত টিম ম্যানেজমেন্টের ছিল না। সিদ্ধান্তটি কেউ চাপিয়ে দেয়নি।’

কাজেই এসব পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে মুশফিক অধিনায়কের পদে থাকবেন কী না সেটি নিয়ে ধোয়াশা থাকলেও বোর্ডের সাথে তার সম্পর্কে যে চিড় ধরেছে তাতে সন্দেহ নেই। বাংলাদেশের পরবর্তী টেস্ট সিরিজের আগে আরো কিছু দিন সময় আছে হাতে। তাই হয়তো বিষয়টি নিয়ে ধীরে সিদ্ধান্ত নেবে বোর্ড। পদে থাকলেও বোর্ডের অসন্তুষ্টি নিয়ে মুশফিক কতটা সাবলীলভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন সেই প্রশ্ন থেকেই যায়।

নিউজ সম্পর্কে আপনার বস্তুনিস্ঠ মতামত প্রদান করুন

টি মতামত